Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Mysterious Man: ৫০ বছর পরেও রহস্যময় নাম ডিবি কুপার, মার্কিন ইতিহাসে অমীমাংসিত প্লেন হাইজ্যাককাণ্ড

৫০ বছর আগের ঘটনা। সালটা ছিল ১৯৯১। ডিবি কুপার হল এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির ছদ্মনাম। যে ব্যক্তি ১৯৭১ সালের ২৪ নভেম্বর বিকেলে পোর্টল্যান্ড থেকে সিয়াটল যাওয়ার জন্য বোয়িং ৭২৭ হাইজ্যাক করেছিলেন।

mysterious man db cooper mid air escape remains only unsolved plane hijacking in us history bsm
Author
Kolkata, First Published Nov 21, 2021, 7:13 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দেখতে দেখতে এসে গেল ৫০টি বছর। কিন্তু এখনও পর্যন্ত রহস্যের (mysterious) কোনও সমাধান তো দূরের কথা- রহস্যের কোনও কূলই পাওয়া গেল না। তদন্তকারীদের কথায় হাওয়ায় হারিয়ে গেল মানুষটি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে (US History) এটি  একমাত্র অমীমাংসিত বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনা (unsolved plane hijacking case)। ছিনতাইকারীর আসল নাম এখনও জানতে পারেননি তাবড়় তাবড় গোয়েন্দারা। তবে পুলিশের খাতায় কলমে সেই রহস্যসময় ছিলনাইকারী বিডি কুপার (BD Cooper)নামে পরিচিত। 

৫০ বছর আগের ঘটনা। সালটা ছিল ১৯৯১। ডিবি কুপার হল এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির ছদ্মনাম। যে ব্যক্তি ১৯৭১ সালের ২৪ নভেম্বর বিকেলে পোর্টল্যান্ড থেকে সিয়াটল যাওয়ার জন্য বোয়িং ৭২৭ হাইজ্যাক করেছিলেন। সেই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি ড্যানকুপার নামে একটি টিকিট কিনে বিমানে চড়েছিল। বিমান অবতরণের সঙ্গে সঙ্গেই বোমা দিয়ে বিমান উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ২ লক্ষ মার্কিন ডলার মুক্তিপণ একটি প্যারাস্যুটও আদায় করেছিল। বর্তমানে যার মূল্য প্রায় দেড় মিলিয়ন মার্কিন ডলার।  তারপর বিমান যখন ৩ হাজার মিটার উচ্চতায় ছিল তখন বিমানের পিছনের দরজা দিয়ে প্যারাশ্যুটে বেরিয়ে যায়। প্রশান্ত মহাসাগরের ওপর চিরতরে হাতিয়ে যায় সেই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি। তারপর এফবিআই ব্যপক তল্লাশি শুরু করেছিল। কিন্তু হ্যাইজ্যাকারকে চিহ্নিত করা যায়নি। উদ্ধারও হয়নি কোনও চিহ্ন।  ডিবি কপারের প্রকৃত পরিচয় আজও রহস্যে মোড়া। 

mysterious man db cooper mid air escape remains only unsolved plane hijacking in us history bsm

পঞ্চার বছর পরেও সেই ব্যক্তির কোনও পরিচয় পায়নি মার্কিন প্রশাসন। যে সেময় সেই ব্যক্তি বিমান ছিনতাই করেছিলেন তখন তার বয়স ৪০ বছরের আসপাশে হবে বলেও ধারনা পুলিশের। সেই হিসেব অনুযায়ী বর্তমানে তাঁর বয়স ৯০এর কোঠায়। যদিও ইউএস ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন সেই নাম না জানা ব্যক্তিকে একজন শান্ত মানুষ বলেও মনে করে। সেদিন তার পরনে ছিল কালো টাই, সাদা শার্ট ও একটি বিজনেস স্যুট। বিমানে চড়ার আগে সেই রহস্যময় ব্যক্তি একটি সোডা ও বোরবন অর্ডার করেছিলেন। ব্যাস এতটাই তথ্য রয়েছে তদন্তকারীদের কাছে। 

Tripura TMC: থানায় আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীরা, বিপ্লব দেবের সরকারকে নির্লজ্জ বলে তোপ অভিষেকের

Rajasthan Cabinet: ১৫-এর মধ্যে ৫, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর যুদ্ধ জয়ের হাসি শচীন পাইলটের মুখে

Bhutan Border: ভূটানের জমি দখলে নতুন চক্রান্ত চিনের, স্যাটেলাইট ইমেজে ধরা পড়ল ৪টি নতুন গ্রাম

কুপার বিমান থেকে ঝাঁপ দেওয়ার পর এফবিআই আমেরিকার উত্তর পশ্চিম ঘন ও রুক্ষ বনে দীর্ঘ দিন অনুসন্ধান চালিয়েছিল। কিন্তু কোনও চিহ্নই পায়নি। পাঁচ বছর টানা তদন্ত করেছিল। প্রায় ৮০০ জনকে জেরা করেছিল। কিন্তু কুপারের কোনও কথাই জানতে পারেনি। সন্ধান পায়নি তার প্যারাস্যুট আর টাকার বাক্সের। তদন্তকারীদের কাছে ধোঁয়াশাই রয়ে গেছে শীতের রাতে কুপার প্লেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে নামার পরে বেঁচে ছিল না মারা গিয়েছিল। 

 এই ঘটনার তদন্ত করেছেন, গবেষক এরিক উলিস। টানা ১৪ বছর তিনি কুরারে  সন্ধান করেছেন। কিন্তু নতুন কোনও তথ্য হাতে পাননি। তাঁর কথায় একটি লোক হঠাৎই উবে গেল। ২০০০ সালে এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছিলেন এফবিআই-এর বিশেষ এজেন্ট মেরি জিন ফ্রয়ার। তাতেও কোনও সমাধান নেই। ২০১৬ সালে এই তদন্ত বন্ধ করে দেয় প্রশাসন।

তবে কুপার বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি কাল্টে পরিণত হয়েছেন। মার্কিন লোককাহিনীর নায়ক তিনি। তাঁর মুখের ছবি তাঁকা টিশার্ট আজও দেদার বিক্রি হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের। তৈরি হয়েছে ফ্যান ক্লাব। যদিও কিছু মার্কিনির দাবি তিনি এখনও বেঁচে রয়েছেন। তবে অন্তরালে থাকতেই তিনি পছন্দ করেন।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios