গত সপ্তাহেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা 'হু'-র সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ঘোষণা করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিশ্ব সংস্থাকে বছরে ৪৫ কোটি মার্কিন ডলার অনুদান দেয় মার্কিন সরকার। এবার সেই অর্থ দেবেন না বলে আগেই জানিয়েছিলেন ট্রাম্প। আর গত সপ্তাহে 'হু' অভ্যন্তরীণ সংস্কার সাধনে চূড়ান্ত ব্যর্থ অভিযোগ তুলে সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে এবার কিছুটা সুর নরম করলেন ট্রাম্প। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যদি নিজেদের অনৈতিক কাজ ও দুর্নীতি বন্ধ রাখে তবেই একমাত্র ফের তাদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের কথা ভাবা হবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

 

 

'হু' কে সবথেকে বেশি আর্থিক সাহায্য দেয় আমেরিকাই। কিন্তু বিশ্ব জুড়ে করোনা মহামারী ছড়িয়ে পড়ার জন্য প্রথম থেকেই চিনের দিকে আঙ্গুল তুলে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। আর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চিনের প্রতি পক্ষপাতিত্ব করে চলেছে বলে দাবি করছেন ট্রাম্প। এই অবস্থায় হোয়াইট হাউসের তরফে জানানো হয়েছে, যদি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দুর্নীতি বন্ধ করে এবং চিনের পক্ষপাতিত্ব করা ছাড়ে তবেই তাদের সঙ্গে সম্পর্ক পুনরায় স্থাপন করার কথা ভাববেন আমেরিকা। মার্কিন প্রশাসনের স্পষ্ট কথা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে পুনরায় নিজেকে তৈরি করতে হবে, যেখানে কোনও দুর্নীতি থাকবে না। পাশাপাশি চিনের পক্ষপাতিত্ব করা যাবে না। 

আমেরিকায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৮ লক্ষ ছাড়াল, এবার 'হু'-র সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নই করে ফেললেন ট্রাম্প

কোয়ারেন্টাইন থেকে মুক্তি পেয়েও মিটল না সমস্যা, পরীক্ষায় ফের কোভিড পজিটিভ কর্ণাটকের ২ ব্যক্তি

৪৭ হাজার ছাড়াল বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা, মাস্ক না পড়লেই দিতে হবে লাখ টাকা জরিমানা

গোটা বিশ্বের নিরিখে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সবচেয়ে বেশি আর্থিক সাহায্য করত আমেরিকাই। চিন যেখানে মাত্র ৪০ মিলিয়ন ডলার দেয় সেখানে আমেরিকা বছরে দিত ৪৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এই অবস্থায় আমেরিকার সঙ্গে পুনরায়  সম্পর্ক স্থাপন করতে যে তারা আগ্রহী তা বুঝিয়ে দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও। ট্রাম্প ঘোষণা করলেও সম্পর্কে যে ছেদ পড়বে না সেই বিষয়ে আশাবাদী 'হু'-র ডিরেক্টর জেনারেল টেড্রস অ্যাডানম গেব্রিয়েসাস। এই প্রসঙ্গে আমেরিকা ও মার্কিন নাগরিকদের অবদানের কথাও উল্লেখ করেছেন গ্রেব্রিয়েসাস।

 

 

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য আমেরিকার কঠোর সমালোচনা করেছে চিন। বিশ্বজুড়ে মহামারী পরিস্থিতিতে যেখানে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতি আরো সহায়তা বাড়ানোর প্রয়োজন সেখানে আমেরিকা ক্ষমতার রাজনীতি করছে বলে বিবৃতি দিয়েছে চিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রক। এমনকি আমেরিকাকে অভ্যাসগতভাবে নিষ্কর্মাও বলেছে চিন। এর মধ্যেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে নিয়ে মার্কিন সরকারের সিদ্ধান্তকে পুনর্বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপিয় ইউনিয়নও।