কেন্দ্রীয় বাজেটের তীব্র সমালোচনা করলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। এবারের বাজেট দেশের নাগরিকদের জন্য সঠিক দিশা দেখাতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন তিনি।  সাধারণ বাজেটকে দিশাহীন ও বিভ্রান্তিকর বলে দাবি করলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী। দ্বিতীয় মোদী সরকারের দ্বিতীয় বাজেটে সুদে আয়কর থাকলেও ছাড় ৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে নাগরিকদের।

আরও পড়ুন-'ভেকধারী সরকারের ফেকধারী বাজেট', কেন্দ্রীয় বাজেটকে কটাক্ষ মমতার

কেন্দ্রকে নিশানা করে অমিত মিত্র বলেন, এটাকে পেপারলেস বাজেট বলা হয়েছে। কিন্তু এটা পেপারলেস বাজেট নয়। এটা দিশাহীন এবং বিভ্রান্তকর বাজেট। এই বাজেটে সবচেয়ে উপেক্ষিত মধ্যবিত্তরাই বলে কেন্দ্রীয় বাজেটকে আক্রমণ কেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী। সোমবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর পেশ করা বাজেটে বাংলায় জন্য রেল সহ অন্যান্য খাতে উন্নয়নে আর্থিক বরাদ্দ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার মধ্যে রয়েছে ৬২৫ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ, চা শিল্প, রেল, ইত্যাদি ক্ষেত্রে আরও অর্থ বরাদ্দ করেছে কেন্দ্র।

আরও পড়ুন-কৃষক আন্দোলন সমর্থনকারী ২৫০ টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করল ট্যুইটার, ২৬ জানুয়ারির ঘটনার পর পদক্ষেপ কেন্দ্রের

রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর পাশাপাশি মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্য়ায়ও এর সমালোচনা করেন। শিলিগুড়ির সভা থেকে কেন্দ্রকে নিশানা করে তিনি বলেন, এরপরই ভেকধারী সরকারের ফেকধারী বাজেট বলে কটাক্ষ করেন মুখ্যমন্ত্রী। ''গরিবের টাকা মজুব নয়, কিন্তু পুঁজিবাদীদের টাকা মুকুব করা হচ্ছে। দেশেক একজন বা দুজন লোক পুঁজিবাদীর অর্থভান্ডার। চা শ্রমিকদেরও মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে কেন্দ্র। হয়তো নোটবন্দির মতো, ব্য়াঙ্কবন্দি করে দেবে''। পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে ট্রেনের ভাড়ার এক  টাকাও কেন্দ্র দেয়নি বলে অভিযোগ করেন।