২০১৯-এর লোকসভা ভোটে উত্তরবঙ্গের মাটি শক্ত করেছিল গেরুয়া শিবির। সেই উত্তরবঙ্গ থেকে দাঁড়িয়ে তৃণমূলকে তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কোচবিহারে চতুর্থ রথযাত্রার সূচনা করার আগে জনসভা থেকে নিশানা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেককে। এতদিন সিপিএম-তৃণমূলকে বাংলার মানুষ সমর্থন করেছে। এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানালেন অমিত শাহ। জনসভায় দাঁড়িয়ে প্রতিশ্রুতি দিলেন সোনার বাংলা গড়ে তোলার।

আরও পড়ুন-'ভ্যাকসিন পর্ব শেষ হলেই নাগরিকত্ব শুরু', 'বারবার ঠাকুরনগরে আসবো' জানালেন শাহ

শুভেন্দু দলত্যাগের পর বিধায়কহীন নন্দীগ্রামে জনসভা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই জনসভায় দাঁড়িয়ে নিজেকে ভোটপ্রার্থী ঘোষণা করেছিলেন মমতা। এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করেন অমিত শাহ। বলেন, ''লোকসভা ভোটের আগে আমরা বলেছিলাম রাজ্যে আমরা কুড়িটির বেশি আসনে জিতব। দিদি আমাদের বলেছিলেন, আমরা নাকি শূন্য পাব। আজ উত্তরবঙ্গ থেকে রাজু বিস্তা, নিশিথ প্রামানিকরা সাংসদ হয়ে গিয়েছেন। আর আপনি নিজের জন্য আসন খুঁজে বেড়াচ্ছেন। এখানে দাঁড়াবেন না, ওখানে দাঁড়াবেন। এক জায়গায় লড়বেন না, দুই জায়গায় লড়বেন। বুঝতেই পারছেন না''।

আরও পড়ুন-বামেদের নবান্ন অভিযানে রণক্ষেত্র ধর্মতলা, লাঠিচার্জ-জলকামান, আহত একাধিক


তিনি বলেন আরও বলেন, ''মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ব্যর্থ মমতা। আপনারা এই সরকারকে উপড়ে ফেলে দিন। ৫ বছরের মধ্যে সোনার বাংলা গড়ে তুলব। বিজেপি ক্ষমতায় এলে প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকেই চালু হবে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মানবিধি। শুধু তাই নয়, গত দুবছরে কৃষকদের ১২ বাজার টাকা যা কিনা রাজ্য সরকারে জন্য আটকে আছে, সেটাও দেওয়া হবে। বিজেপি ক্ষমতায় এলে এক সপ্তাহের মধ্যে চালু হবে আয়ুষ্মান ভারত যোজনা। একবার বিজেপিকে সুযোগ দিলেন সোনার বাংলা উপহার দেব''।