দুই দিনের রাজ্য সফরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সফরের প্রথম দিনে মেদিনীপুর সফরে গিয়ে বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুর মূর্তিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন তিনি। মেদিনীপুর শহর লাগোয়া হবিবপুরে ক্ষুদিরাম বসুর মাসির বাড়িতে থাকা ক্ষুদিরামের মূর্তিতে মাল্যদান করেন অমিত শাহ। কথা বলেন ক্ষুদিরাম বসুর বংশধরদের সঙ্গে। তাঁদের উত্তরীয় দিয়ে সম্মান প্রদান করেন অমিত শাহ।

আরও পড়ুন-'শাহ যদি বিবেকানন্দ মানত, গুজরাটে দাঙ্গা হত না', তৃণমূলের ভরাডুবিতে মেজাজ হারালেন ফিরহাদ

বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুর মূর্তিতে মাল্যদানের তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়ে অমিত শাহ বলেন, ''ক্ষদিরাম বসু শুধু বাংলার নয়, ভারতেরও। স্বাধীনতা আন্দোলনের তাঁর অবদান সারাজীবন মনে রাখবে অপামর ভারতবাসী। এটা আমার সৌভাগ্য যে, আমি বীর শহিদের জন্মভিটেতে আসতে পেরেছি। উনি একজন বীর যুবক ছিলেন। মাত্র ১৮ বছর বয়সে দেশের জন্য উৎস্বর্গ করেছিলেন। তাঁর বন্দেমাতরম স্লোগান, যখন তিনি ফাঁসিতে মৃত্যুবরনের সময় বলেছিলেন। আজ তা গোটা ভারতের স্লোগান''।

আরও পড়ুন-কৃষক সনাতন সিং-এর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজন, জানুন কী কী ছিল অমিত শাহের মেনুতে

তিনি আরও বলেন, ''আমি দেশের যুবকদের বলতে চাই, আমরা দেশের জন্য প্রাণ দেওয়ার সুযোগ হয়নি। কিন্তু, দেশের জন্য বাঁচার সুযোগ আমাদের কাছে আছে। আমরা ক্ষদিরাম বসুকে স্মরক করে তাঁক দেখানো পথই অনুসরন করব এবং মোদীজির নেতৃত্বে এক মজবুত, সুরক্ষিত ভারতের নির্মাণ করব। বাংলায় যাঁকা জাতপাতের রাজনীতি করেন. তাঁদের বলতে চাই, ক্ষুদিরাম বসু যতটা বাংলার ছিলেন, ততটা ভারতেও ছিলেন''।