বৃহস্পতিবার লোকসভায় লিখিত জবাবের মাধ্যমে সোশ্যাল জাস্টিস মন্ত্রকের মন্ত্রী থোয়ার চাঁদ গেহলট একটি পরিসংখ্য়ন তুলে ধরেছিলেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর হিসেব অনুয়াযী দেশে প্রায় ৪ লক্ষ ভিক্ষুক রয়েছে। আর ভিক্ষুকের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে  পশ্চিমবঙ্গ। যদিও ২০১১ সালের আদমসুমারি অনুযায়ী তৃতীয় স্থানে ছিল পশ্চিমবঙ্গ। প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে ছিল উত্তর প্রদেশ ও বিহার।  কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পরিসংখ্যন নিয়েই বিজেপি নেতা সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রামণ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় অমিত মালব্য বলেন, কমিউনিস্টদের পর বাংলার শাসনকাজ পরিচালনা করেছে পিসির (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) সরকার। তারপরেই রাজ্যের অর্থনৈতিক ধ্বংসের পথ অব্যাহত রয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ সর্বাধিক ভিক্ষুক তৈরিতে শীর্ষ স্থানে পৌঁছে যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন অমিত মালব্য। তিনি আরও বলেন দুর্ণীতি,হিংসা আর দূরদর্শিতার অভাবের প্রকট হচ্ছে। আর পিসির উন্নয়নের দাবিগুলি ভুল প্রমাণ করছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর তথ্য অনুযায়ী দেশের ২,২১.৬৭৩ জন পুরুষ ভিখারি ও ১,৯১,৯৯৭ জন মহিলা ভিখারি রয়েছে। মোট ভিখারির সংখ্যা ছিল ৪.১৩,৬৭০।  কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানিয়েছেন ২০১১ সালে আদমসুমারির ভিত্তিতে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী বাংলা, অসম, মণিপুরে মহিলা ভিখারিরা পুরুষের তুলনায় বেশি। তিনি আরও জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে ভিখারির সংখ্যা ৮১ হাজার ২২৪, অন্ধ্র প্রদেশে ভিখারির সংখ্যা ৩০ হাজার ২২৮ বিহারের ২৯ হাজারের বেশি ভিখারি রয়েছে। চার ও পাঁচ নম্বরে রয়েছে মধ্যপ্রদেশ ও রাজস্থান।