বিগ্রেডে আসতে চান বুদ্ধদেব। তবে বাধ সাধছে দীর্ঘ দিনের শারীরিক অসুস্থতা। তবে এবার শুধু চিকিৎসকদের অনুমতি মিললেই কেল্লাফতে। বামেদের বিগ্রেডে তাহলে আসতে পারবেন রাজ্য়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। 

আরও পড়ুন, তৃতীয় ও চতুর্থ দফায় হুগলির ১৮ বিধানসভা আসনে ভোট, জেলার কোন আসনে কোন দফায় ভোট, দেখে নিন  

 

 

সূত্রের খবর, দলের কাছে বিগ্রেড সমাবেশে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করে বার্তা পাঠিয়েছেন রাজ্য়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। অসুস্থতার কারণে শয্যাশায়ী হলেও বিগ্রেডে আসতে চান তিনি। এদিকে রাজ্য সিপিএম নের্তৃত্বও চায়, অল্প সময়ের জন্য হলেও সমাবেশে আসুন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। সিপিএমের ছাত্র এবং যুব সংগঠনের নেতা-ক্রমীরা দলের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, বিগ্রেডে বুদ্ধদেবের ভার্চুয়াল উপস্থিতির বন্দোবস্ত করা হোক। জানা গিয়েছিল, ব্রিগেডে লিখিত বার্তা পাঠাবেন তিনি। কিন্তু শুক্রবারই বুদ্বদেব নিজেই সমাবেশে আসার ইচ্ছে প্রকাশ করতে খুশির প্লাবন বামশিবিরে।

আরও পড়ুন, কলকাতায় বর্ণাঢ্য রোড শোয়ে থাকবেন শাহ, আগামী সপ্তাহে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সফর ঘিরে উৎসাহ তুঙ্গে 

 

 


 অপরদিকে, চিকিৎসকদের মতে বিগ্রেডের সমাবেশে না যাওয়াই উচিত বুদ্ধদেবের। কারণ ব্রিগেডের ময়দানে ব্যপক ধুলো ওড়ে। ধুলোয় অল্যার্জি রয়েছে বুদ্ধদেবের। তাই না আসাটাই শ্রেয় বলে দাবি চিকিৎসকদের। এদিকে বুদ্ধদেবে ব্রিগেডে আসা নিয়ে আরও উসকেছেন সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। তিনি বলেছেন, বুদ্ধদেব শুধু একটা নাম নন। তিনি বামফ্রন্ট কর্মী-সমর্থকদের কাছে একজন এমন নেতা যার কথা শোনার অপেক্ষায় থাকেন সবাই। তিনি সমাবেশে এলে এর থেকে বড় খুশির খবর আর নেই। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে চিকিৎসকদের সিদ্ধান্তের উপর।'