ভোটের আগে তৃণমূলে ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। শাসকদলের বিধায়ক থেকে মন্ত্রী যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। একইসঙ্গে পাল্টা বিজেপিতেও ভাঙন ধরালো তৃণমূল কংগ্রেস। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন দীপক রায়। রবিবার তৃণমূল ভবনে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নেন। তাঁকে যোগদান করান তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়। তৃণমূলে যোগ দিয়েই মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন দীপক রায়।

আরও পড়ুন-দেবী দূর্গা নিয়ে দিলীপ ঘোষের বিতর্কিত মন্তব্যে উত্তাল রাজনীতি, মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ তৃণমূলের

বিজেপির এসসি মোর্চার সহ সভাপতি ছিলেন দীপক রায় ও সদস্য সুব্রত রায়। এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে দুজনেই তৃণমূলে যোগদান করেন। দলবদলের পর দীপক রায় বলেন, ''২০১৪ সাল থেকে আমি রাজনীতিতে আসি। ৩৪ বছরের বাম সরকারের আমলে কোনও উন্নয়নমূলক কাজ হয়নি। ২০১১ সালে মমতার সরকার আসার পর থেকেই উন্নয়নের কাজ শুরু করেন। বিজেপিতে থেকে তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের জন্য কিছু করা যাবে না। ত্রিপুরা, অসমে অনেক কিছুই হয়েছে, সেসব তথ্য় পরে বলব''।

আরও পড়ুন-ভ্যালেইটাইন ডে-তে উদ্দীপন আর উচ্ছ্বাস, ভালবাসার টানে মেতে উঠল নবাবনগরী

এরপরই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে সরব হন দীপক রায়। তিনি বলেন, ''যাঁকে পছন্দ করতেন তাঁকে, অথবা টাকা নিয়ে পদ দিতেন মুকুল। মকুল রায়কে সংগঠন দেখার সময় দিয়েছিলেন তিনি। মুকুরবাবু ক্ষমতা পেয়েই লাঞ্ছিত মানুষকে ভুলে গিয়ে নিজের মতো চলা শুরু করেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশ্বাসের সুযোগ নিয়ে উনি আসলে পিছন থেকে ছুরি মেরেছেন''। অভিযোগ দীপক রায়ের।