পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে ডোমজুর আসন থেকে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে আসা দলবদলু নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রার্থী করেছে বিজেপি। চলতি সপ্তাহেই তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ভারতের নির্বাচন কমিশনের কাছে যে হলফনামা জমা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন বনমন্ত্রী, তাতে তিনি জানিয়েছেন তাঁর মোট সম্পত্তির মূল্য ৫৮,০২,০০৬ টাকা।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসেই বিজেপিতে যোগ দেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে এই ডোমজুর কেন্দ্র থেকেই তিনি পরপর দু'বার বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন। ৫১ বছর বয়সী এই নেতা জানিয়েছেন তাঁর অস্থাবর ও স্থাবর সম্পদের মূল্য যথাক্রমে ১৮,৩৭,০০৬ এবং ৩৯,৬৫,০০০ টাকা।

আরও পড়ুন - তৃণমূলের নির্বাচনী ইশতেহার - প্রশ্নের মুখে 'দিদির অঙ্গীকার', উত্তর খুঁজছে বাংলার জনতা

আরও পড়ুন - ফলাফল যাই হোক, রাজনৈতিক জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বাঁকের মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আরও পড়ুন - চন্ডীতলায় একেবারে 'ঘরের ছেলে' যশ, জনতার সাড়া কতটা পাচ্ছেন তারকা প্রার্থী, দেখুন ছবিতে ছবিতে

অস্থাবর সম্পদের মধ্যে তাঁর ব্যাঙ্কে গচ্ছিত অর্থের মূল্য ১১,৬৮,৬৩২.৭৯ টাকা। আর তাঁর হাতে নগদ অর্থ রয়েছে ১৯,৭৮০ টাকার। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ২০১৯-২০ সালে তার আয় ছিল ১,৩২,০০০ টাকা। বাংলার প্রাক্তন মন্ত্রী জাতীয় সঞ্চয়পত্র (NSC) এবং জীবন বীমা প্রকল্প (LIC)-এ জমা রয়েছে মোট ২,১১,৭৭০ টাকা। এছাড়া, তাঁর নামে ৩০৮.২৬ গ্রাম সোনার গহনা রয়েছে। যার মূল্য ৪,৩৬,৮২৪ টাকা।

হলফনামা অনুযায়ী তাঁর স্থাবর সম্পদ বলতে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার মধ্যগ্রামে দুটি ফ্ল্যাট। যেগুলির সম্মিলিত বাজার মূল্য ৩৯,৬৫,০০০ টাকা। সেইসঙ্গে, এমবিএ পাস রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, তাঁর বিরুদ্ধে কোনও বিচারাধীন মামলা নেই।  

অন্যদিকে, তাঁর স্ত্রীর অস্থাবর ও স্থাবর সম্পদের মূল্য যথাক্রমে ১০,৮২,১৬৩ এবং ১০,৮০,০০০ টাকা। তাঁর কাছে সোনার গহনা রয়েছে ৩৫৩.৫৬ গ্রাম, যার মূল্য ৭,২০,৬১০ টাকা।