কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সফরের প্রথম দিনেই মেদিনীপুরের সভায় বিজেপিতে যোগদান করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে গেরুয়া শিবিরেই নাম লেখান তিনি। দল বদলের পর প্রথম সভা থেকে তৃণমূলকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি। এই অবস্থায় তাঁর বাবা শিশির অধিকারী ও ভাই দিব্যেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক ভবিষ্যত কী? তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে রাজ্য রাজনীতিতে।

আরও পড়ুন-অমিতের মেগা রোড শো, বোলপুরে পাড়ায় পাড়ায় পালটা 'বঙ্গধ্বনি যাত্রায়' অনুব্রত

এবিষয়ে অবশ্য নিদের অবস্থান স্পষ্ট করেন তৃণমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, ''আমি তৃণমূলের সাংসদ আছি থাকব। শুভেন্দুর বিজেপিতে যোগদান সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগত সৈনিক। আগামিদিনেও মমতার সঙ্গেই থাকব''। পাশাপাশি, তিনি আরও বলেন, ''আমি পাগলা ষাঁড় নই। আমার অবস্থান স্পষ্ট''।  যদিও, শুভেন্দু অধিকারীর বাবা দিব্যেন্দু অধিকারী অবশ্য নিজের সম্পর্কে কোনও কিছুই মন্তব্য করেননি।

আরও পড়ুন-'মমতাকে হারাবেন বাংলার ভূমিপুত্রই, দিল্লির লোকের প্রয়োজন নেই', বললেন অমিত শাহ

মেদিনীপুরে অমিত শাহের সভায় বিজেপিতে যোগদান করেন একঝাঁক তৃণমূল বিধায়ক। তা নিয়ে তৃণমূলের অন্দরেই অনেক সমালোচনা করছেন তৃণমূলের অনেক বিধায়ক। পাঁশকুড়া পূর্বের তৃণমূল বিধায়ক ফিরোজা বিবি বলেন, ''নন্দীগ্রামের সেন্টিমেন্ট নিয়ে উনি খেলা করলেন। এটা একদমই ভাল কাজ করলেন না। শুভেন্দুর এতদিনের অভিনয়ের মানে কি''?