''ওঠো জাগো, লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাও'', বিবেকানন্দের এই উক্তি উদ্ধৃত করেছিলেন দীনেশ ত্রিবেদী। সংসদে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন ''দমবন্ধ লাগছে''। বিবেকানন্দকে স্মরণ করে তাঁর পথ অনুসুরন করে এগিয়ে যেতে চাই, এমনই জানিয়েছিলেন তৃণমূলের প্রাক্তন রাজ্যসভার সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী। এরপরই, নিজের ট্যুইটার অ্য়াকাউন্ট থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের ছবি সরিয়ে ফেলেছেন। সেখানে জায়গা দখল করেছেন স্বামী বিবেকানন্দ। 

আরও পড়ুন-'দলকে রাস্তায় এনে দাঁড় করিয়েছেন','ব্ল্যাকমেলটা কে করেছে'- মতুয়াদের CAA ইস্যুতে তোপ শান্তনুর

''দমবন্ধ  লাগছে'', সংসদে দাঁড়িয়ে এই মন্তব্য করার পর বাইরে সাংবাদিক তিনি জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখেই তিনি তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু, দলটা এখন আর তৃণমূলের হাতে নেই। তাই তিনি রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরই, নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে বিবেকাননন্দের ছবি লাগানোয় রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা শুরু হয়েছে। এবার কি তিনিও গেরুয়া শিবিরের খাতায় নাম লেখাতে চলেছেন। গত ১০ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর ট্যুইট রিট্যুইট করে তাঁক সমর্থন জানিয়ে জল্পনা বাড়িয়ে দিয়েছিলেন দীনেশ ত্রিবেদী। এবার ট্যুইটার থেকে মমতার ছবিও সরিয়ে ফেললেন। নজিরবিহীনভাবে তাঁকে ফলো করছেন বাংলার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

আরও পড়ুন-'মতুয়াদের সঙ্গে ভাঁওতাবাজি করছেন শাহ', অনুনন্নয়ন নিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়ে তোপ মমতাবালার

তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরই, তাঁকে বিজেপিতে আহ্বান জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষরা। সূত্রের খবর, গুজরাত থেকে বিজেপির হয়ে রাজ্যসভায় যেতে পারেন দিনেশ ত্রিবেদী। ২০১৯-এর লোকসভা ভোটে বারাকপুর কেন্দ্র থেকে অর্জুন সিংয়ের কাছে হেরে গিয়েছিলেন তৃণমূলের টিকিটে যাওয়া দীনেশ ত্রিবেদী। এই অবস্থায় তাঁকে রাজ্যসভার সাংসদ হওয়ার জন্য মনোনিত করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস।