দক্ষিণ কাঁথির বুথ কাণ্ডে তৃণমূলের অভিযোগ খারিজ করল কমিশন। উল্লেখ্য, শনিবার সকালে দক্ষিণ কাঁথির বুথে তৃণমূলের ভোট বিজেপিতে পড়ার অভিযোগ ওঠে। এবং ওই অভিযোগকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় কাঁথির মাজনা হাই মাদ্রাসা ৭১ নম্বর বুথে। কিন্তু শেষ অবধি  তৃণমূলের অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে কমিশন। 

আরও পড়ুন, সকাল থেকেই EVM বিভ্রাটে একাধিক জায়গায় বন্ধ ভোটগ্রহণ, জানুন কোথায় কোথায় 


প্রসঙ্গত, রাজ্যে প্রথম দফা ভোটের শুরুতেই ভয়াবহ অভিযোগ দক্ষিণ কাঁথির মাজনায়। বুথের বাইরে ভোটারদের তুমুল বিক্ষোভ চলতে থাকে। অভিযোগ, যে দলের প্রার্থীকে ভোট দেওয়া হচ্ছে সেখানে ভোট পড়ছে না। ইভিএমে তৃণমূলে ভোট দিলে, সেই ভোট পড়ছে  বিজেপিতে বলে অভিযোগ ওঠে। তৃণমূলে ভোট দেওয়ার পর ভিভিপ্যাডে বিজেপির পদ্মফুল সিম্বল আসছে বলে দাবি জানায় বিক্ষোভকারীরা। এই অভিযোগ আসার পর থেকেই তীব্র উত্তেজনা  ছড়িয়ে পড়ে ওই এলাকায়। বুথের সামনে বিক্ষোভের জেরে বন্ধ হয়ে যায় ভোট গ্রহণ। শুধু দক্ষিণ কাঁথির মাজনা নয়, তার পাশের বুথেও একইরকম অভিযোগ উঠে এসেছে।  ইভিএমে কারচুপির ভোটারদের বিক্ষোভের জেরে ভোটদান আপাতত বন্ধ। ব্য়াপক বিক্ষোভের জেএরপর কমিশনে অভিযোগ জানায় তৃণমূল। 

আরও পড়ুন, আজ প্রথম দফার ভোটের সকালেই কেশিয়াড়িতে উদ্ধার BJP কর্মীর দেহ, ফের কাঠগড়ায় তৃণমূল 


 কিন্তু নির্বাচন কমিশন সাফ জানিয়েছে, 'এমনটা কোনওভাবেই সম্ভব নয়।' এই ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত করে কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে তৃণমূলের অভিযোগ ভিত্তিহীন। ভোটযন্ত্র সঠিকভাবেই কাজ করছে বলে তাঁদের জানিয়েছেন আধিকারিকরা।