শেষ হল পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ। ভারতের নির্বাচন কমিশনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সন্ধ্যা সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের ৪ রাজ্যের ৩০ আসনে গড়ে ৮০.৪৩ শতাংশ ভোট পড়েছে।

সর্বাধিক ভোট দিয়েছেন কোতুলপুর আসনের ভোটাররা। এখানে ৮৭.২১ শতাংশ ভোট পড়েছে। পিছিয়ে ছিল না হাই-প্রোফাইল কেন্দ্র নন্দীগ্রাম-ও। এখানে ভোট পড়েছে ৮০.৭৯ শতাংশ।

আরও পড়ুন - শুভেন্দু অধিকারীর গাড়িতে 'পাকিস্তানি'দের হামলা - ইটের ঘায়ে ভাঙল কাচ, অক্ষত বিজেপি নেতা

আরও পড়ুন - কেশপুরে বিজেপি প্রার্থীর উপর প্রাণঘাতি হামলা, ভয়ঙ্কর আক্রমণ সংবাদমাধ্যমের উপরও

আরও পড়ুন - বয়াল গ্রামে বোতল-বন্দি মমতা, ফুটবলের স্ট্র্যাটেজিতেই কি মাত করলেন শুভেন্দু

বৃহস্পতিবার, সকাল সাতটায় দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছিল। দ্বিতীয় দফার ভোটে নন্দীগ্রাম, কেশপুর-সহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে রাজনৈতিক হিংসা দেখা গিয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বরাল গ্রামের একটি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করতে গেলে, বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে শুরু করেছিলেন। দুই পক্ষের মধ্যে প্রায় সংঘর্ষের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। ২ ঘন্টা পর সেখান থেকে বের হতে পারেন মমতা।

অন্যদিকে শুভেন্দু অধিকারীর গাড়িতেও হামলা চালানো হয়। নির্বাচনী এলাকার বেশ কয়েকটি জায়গায় তার গাড়িতে পাথর মারা হয়েছে। কেশপুরে বাঁশ, রড, ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালানো হয় বিজেপি প্রার্থীর উপর। চন্ডীপুরে আক্রান্ত হন তৃণমূল প্রার্থী তথা অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীও। দুর্বৃত্তদের হাতে আক্রান্ত হয়েছে সংবাদমাধ্যমের উপরও, ভাঙচুর করা হয়েছে গাড়িও।