নন্দীগ্রাম ইস্যুতে মামলা দায়ের করল পুলিশ। নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী এজেন্ট আবু সুফিয়ানের অভিযোগের ভিত্তিতেই মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও পুলিশ সূত্রের খবর। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৪১ ও ৩২৩ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী এজেন্ট আবু সুফিয়ান বলেছেন বর্তমানে নন্দীগ্রামের পরিস্থিতি পুরোপুরি শান্ত রয়েছে। নন্দীগ্রামের বাসিন্দারা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আরোগ্য কামনা করছেন। হিন্দু ও মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের মানুষই নিজেদের মত করে দলনেত্রীর জন্য প্রার্থনা করছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে এদিন বিজেপি একটি বিবৃতি দিয়ে নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রীর আক্রান্ত হওয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে হামলার ঘটনা খুবই দুঃখজনক। টিভিতে পুরো ঘটনা দেখে তাঁরা চমকে উঠেছিলেন বলেও জানিয়েছেন। নিরাপত্তা বাহিনী থাকা সত্ত্বেও কী করে হামলা চালান হল তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। পাশাপাশি গোটা ঘটনার তদন্তেরও দাবি জানান হয়েছে গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে।

অন্যদিকে এদিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা শাসক বিধু গোয়েল ও পুলিশ সুপার প্রবীন প্রকাশ। তাঁরা জেলা বিরুলিয়া বাজারে যান। যে জায়গায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধাক্কা দেওয়া হয়েছিল বলে তিনি অভিযোগ করেছিলেন সেই স্থানটিও তাঁরা পরিদর্শন করেন। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে পুরো ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্টও সংগ্রহ করেন। তাঁদের তৈরি রিপোর্টই আসবে নবনিযুক্ত ডিজি নীরজনয়ন ও এডিজি আইনশৃঙ্খলা জগোমহনের কাছে। 

 

 

অন্যদিকে এদিন সকালেই থেকই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল নন্দীগ্রামের বিস্তীর্ণ এলাকা।স্থানীয় বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধাক্কা দেওয়া হয়নি। আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মিথ্যা কথা বলেছেন। এই অভিযোগ তুলে সরব হন বিজেপি কর্মীরা। তাঁরা বেশ কয়েকটি জায়গায় টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ বিক্ষোভে সামিল হয়।  কিছু সময় পরই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।