জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বুধবার বিধায়ক পদ ছেড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। ঠিক তার পরের দিন তমলুকে সভা করলেন তিনি। তাম্রলিপ্ত জাতীয় সরকারের প্রতিষ্ঠা দিবস প্রতিবছরই পালন করেন শুভেন্দু। সেই মতো এবছর ওই দিনটি পালন করেন। সেখান কী বার্তা দেন শুভেন্দু? সেদিকেই নজর ছিল রাজনৈতিক মহলের।

আরও পড়ুন-ভোট প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে কলকাতায় উপনির্বাচন কমিশনার, একুশের আগে ৫ দিনের সফরে সুদীপ জৈন

বৃহস্পতিবার তমলুকের নিমতৌড়িতে তাম্রলিপ্ত জাতীয় সরকারের প্রতিষ্ঠা দিবসে সভা করেন শুভেন্দু। কিন্তু সেখান জনসভা থেকে সংক্ষিপ্ত ভাষণ দেন শুভেন্দু। তারপরই, শোভাযাত্রাই হাঁটতে শুরু করেন তিনি। বিধায়ক পদ ছাড়ার পর এবার হতো তিনি রাজনৈতিক কিছু বলবেন। কিন্তু প্রত্য়াশিতভাবেই কিছুই বললেন শুভেন্দু। তিনি বলেন, ''২১ মাসের জন্য গঠন হয়েছিল তাম্রলিপ্ত জাতীয় সরকার। ওই ২১ দিনের সরকারকে ব্রিটশরা ফেলে দিতে পারে নি। যারা এই ইতিহাস জানেন না, তাঁরা শুধু ভোট চায়''।

আরও পড়ুন-বর্ধমানে শুভেন্দু-র রুদ্ধদ্বার বৈঠক, তবে কি তৃণমূল ছাড়ছেন বিশিষ্ট সাংসদ-সহ আরও নেতা

তিনি আরও বলেন, ''আমার জনশক্তি আছে, জনশক্তিই আসল শক্তি। ভোট চাই, ভোট দাও, ভেঙে দাও, গুঁড়িয়ে দাও, জ্বালিয়ে দাও। শুধু এর মধ্যে আটকে থাকলে চলবে না। বহুদলীয় গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা আছে। কিন্তু তার সঙ্গে এই ইতিহাসও থাকবে''। শুভেন্দু সংক্ষিপ্ত ভাষণ দিয়ে শোভাযাত্রায় হাঁটতে শুরু করেন। শুভেন্দুর শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছিলেন অগণিত মানুষ। ঢাক-ঢোল-কাঁসর ঘণ্টা বাজিয়ে শোভাযাত্রা করেন তাঁরা।