তাপস দাস, প্রতিনিধি- ২০১১ সালে শুরু করেছিলেন। মাঝে এক দু বছর ফাঁকা গিয়েছে বটে, তবে মোটামুটি নিয়মিত ভাবেই বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলের মহালয়ার অনুষ্ঠানে তাঁকে দেখা গিয়েছে মহিষাসুরমর্দিনী রূপে। 

২০২১ সালের ভোটরঙ্গে তিনি প্রার্থী রূপে। গত মাসের শেষের দিকে ভোট শুরু হয়েছে। আর তার এক মাসেরও কম সময় আগে পদ্মপতাকা হাতে তুলেছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। তিনি মোটামুটি ভাবে তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত ছিলেন। বিজেপিতে যোগ দেবার পর জানান, নরেন্দ্র মোদীর অনুপ্রেরণায় তিনি এ দলে যোগ দিয়েছেন। তাঁর বিশ্বাস, গেরুয়া বাহিনীই প্রকৃত পরিবর্তন আনতে সক্ষম হবে। 

আরও পড়ুন- বেহালায় মিঠুনের রোড শো বাতিল, ফোঁস করে উঠলেন বিজেপির 'কোবরা' প্রচারক.

 

শ্রাবন্তীর রাজনৈতিক কেরিয়ার নিয়ে খুব কিছু বলার মত যে নেই, সে কথা তিনিও জানেন। সে ফাঁক মেটাতে তিনি জনসংযোগে জোর দিয়েছেন, লোকের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন। প্রচারের শেষ দিনে মিঠুন চক্রবর্তীকে নিয়ে তাঁর রোড শোয়ের কর্মসূচির ব্যাপারে পুলিশ অনুমতি না দিলেও তিনি সে রোড শো শুরু করে দেন। তাঁর অভিযোগ, চক্রান্ত করে তাঁর রোড শো বাতিল করেছে পুলিশ। 

শ্রাবন্তীর ফিল্ম কেরিয়ার কিন্তু একেবারেই রাজনৈতিক কেরিয়ারের মত নয়, তা যথেষ্ট দীর্ঘ। ১৯৮৭ সালে জন্ম তাঁর। ১৯৯৭ সালেই প্রসেনজিৎ ঋতুপর্ণার ছবি মায়ার বাঁধনে তিনি মায়া চরিত্রে রূপদান করেন। ছবির পরিচালক ছিলেন স্বপন সাহা। এরপর ২০০৩ সালে জিতের বিপরীতে চ্যাম্পিয়ন। তার পাঁচ বছর পর হিরণের বিপরীতে। ব্যাস, আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে। কাজ করেছেন অপর্ণা সেন, সৃজিত মুখার্জির মত পরিচালকদের সঙ্গে। কাজ করেছেন অঙ্কুশ-হিরণ-আবির-জিতের মত নায়কদের সঙ্গে। এখনও মুক্তির অপেক্ষায় যে চারটি ছবি রয়েছে, তার মধ্যে একটি কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত, যে ছবিতে রয়েছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। এ ছাড়া 
একটি টেলিভিশন শো তিনি হোস্টও করেছেন। 

আরও পড়ুন- 'কোভিড আক্রান্তরাও ভোট দেবেন', চতুর্থ দফার আগে রাজ্যবাসীকে বিশেষ বার্তা মমতার

কেরিয়ারগ্রাফ যেমন উন্নত, তার সঙ্গে মানানসই শ্রাবন্তীর সম্পদও। তিনি প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকার মালকিন। হলফনামায় জানিয়েছেন, তাঁর হাতে নগদই রয়েছে এক লক্ষ টাকা। আর দুটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে রয়েছে ১ কোটি ১০ লক্ষ ৬১ হাজারের কিছু বেশি এবং ৫০ লক্ষ টাকা। শ্রাবন্তীর গাড়ি দুটি। একটি অডি কিউ এবং একটি মারুতি ব্যালেনো। প্রথম গাড়ির দাম ৫৩ লক্ষ টাকার বেশি, অন্য গাড়িটির দাম প্রায় ৮ লক্ষ টাকা। শ্রাবন্তীর কাছে যে সোনার গয়না রয়েছে, তার বাজার দাম প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা। হিরে রয়েছে ২০ লক্ষ টাকারও বেশি মূল্যের। এখানেই শেষ নয়, তাঁর কাছে প্ল্যাটিনামের যে গয়নাগাঁটি রয়েছে, তার দাম ১২ লক্ষ টাকার বেশি। ১ লক্ষ ৪৪ হাজার টাকা দামের একটি হাতঘড়িও রয়েছে তাঁর। 

 

শ্রাবন্তী একটি কৃষিজমিরও মালকিন। দক্ষিণ ২৪ পরগনার লেদার কমপ্লেক্সে অবস্থিত সে জমির এখনকার দাম ৮ লক্ষ টাকা। বেহালা পর্ণশ্রীতে তাঁর দুটি ফ্ল্যাট রয়েছে, একটি ১২৭১ বর্গফুটের, অন্যটি ২২০০ বর্গফুটের। প্রথমটির বর্তমান দাম ৪০ লক্ষ টাকা ও দ্বিতীয়টির বর্তমান দাম ১ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা। 

এ হেন কোটিপতি মহিষাসুরমর্দিনীর রূপদাত্রীর ভোটকপালে কী রয়েছে, তা জানা যাবে ১০ এপ্রিল। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী যথেষ্ট শক্তিশালী। তৃণমূল কংগ্রেসের পার্থ চট্টোপাধ্যায়।