সরকারি বাস পবিষেবা কি তাহলে বন্ধ হয়ে যাবে? মারণ ভাইরাস ঢুকে পড়ল 'গ্রিনজোন' উত্তর দিনাজপুরে। করোনায় আক্রান্ত হলেন কলকাতা ফেরত তিনজন। আক্রান্তদের ভর্তি করা হয়েছে কোভিড হাসপাতালে।

আরও পড়ুন: করোনা ছড়াচ্ছে বর্ধমানেও, এবার আক্রান্ত হলেন কলকাতা ফেরত যুবক

পূর্ব বর্ধমান, বীরভূমের পর এবার উত্তর দিনাজপুর। এ রাজ্যে গ্রিনজোনের তকমা হারাতে চলেছে আরও একটি জেলা। দু'জনের বাড়ি রায়গঞ্জ ব্লকের শ্যামপুর ও শেরপুরে, আর একজন হেমতাবাদের সমাসপুরের বাসিন্দা। জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মীনা জানিয়েছেন, দিন কয়েক আগে কলকাতা থেকে সাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফেরেন ওই তিনজন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন তাঁরা। সোয়াব বা লালারস পরীক্ষায় তিনজনেরই করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এরপর আক্রান্তদের নিয়ে আসা হয় কোভিড হাসপাতালে। যাঁরা সংস্পর্শে এসেছেন, তাঁদের খোঁজ করছে প্রশাসন।

আরও পড়ুন: রেড জোন মালদহে আরও ৪ করোনা আক্রান্তের হদিস, আতঙ্কে জেলার মানুষ

আরও পড়ুন: মাত্র ৫০০ টাকাতেই করোনা পরীক্ষা, দেড় ঘন্টায় রিপোর্ট জানাবে কলকাতার এই সংস্থার টেস্ট কিট

উত্তর থেকে দক্ষিণ। যতদিন যাচ্ছে, এ রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। রেহাই পাচ্ছেন না চিকিৎসক ও নার্সরাও। ব্যতিক্রম ছিল উত্তর দিনাজপুর। শুক্রবার পর্যন্ত জেলায় একজনও করোনা আক্রান্ত ছিলেন না। 'গ্রিন জোন'-এ শুক্রবার থেকে চালু হয়ে যায় সরকারি বাস পরিষেবাও। উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার তরফে জানানো হয়, রায়গঞ্জ ডিপো থেকে আপাতত কুড়ি জন করে যাত্রী নিয়ে চারটি রুটে চলবে বাস। করোনা সুরক্ষায় বাস চালক ও কর্মীদের হাতে তুলে দেওয়া হয় পিপিই-ও। এবার কি আর সচল থাকবে পরিবহণ? প্রশ্ন উঠেছে।