কৌশিক সেন, রায়গঞ্জ:  নিজের স্বয়ংক্রিয় সার্ভিস রাইফেল থেকে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা? বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া চা বাগান থেকে উদ্ধার হল বিএসএফ জওয়ানের দেহ। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুরের চোপড়ায়।

আরও পড়ুন: বন্ধুদের সঙ্গে স্নান করতে নেমে নদীতে তলিয়ে গেল কলেজ ছাত্র, নদিয়ার নাকাশিপাড়ায় চাঞ্চল্য

মৃত জওয়ানের নাম কেদারনাথ হাঁসদা। বাড়ি, মেদিনীপুরে। চোপড়ার দাসপাড়া পঞ্চায়েত এলাকা লাগোয়া বাংলাদেশ সীমান্তে কর্মরত ছিলেন তিনি। বিএসএর সূত্রে খবর, শুক্রবার রাতে সীমান্তে নজরদারি দায়িত্ব সামলান কেদারনাথ। শনিবার ভোরের দিকে ওই জওয়ানের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। কোথাও গেলেন তিনি? কিছুতেই লোকেশন পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষপর্যন্ত গুলির শব্দ শুনে যখন সীমান্ত চৌকির ইনচার্জ দু'জনকে কেদারনাথের খোঁজ করতে পাঠান, তখন সীমান্ত লাগোয়া চা বাগানে তাঁর রক্তাক্ত মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। গলার নীচে ও থুতনিতে তিনটি গুলির ক্ষতচিহ্ন পাওয়া গিয়েছে। দেহের পাশ থেকে উদ্ধার হয়েছে ওয়াকিটকি, টর্চ ও স্বয়ংক্রিয় রাইফেল।

আরও পড়ুন: পুরুলিয়ায় ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা, সাইকেল আরোহীকে বাঁচাতে গিয়ে অটো-গাড়ির সংঘর্ষে মৃত ২

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান বিএসএফ-এর পদস্থ আধিকারিকরা। খবর দেওয়া হয় চোপড়া থানায়ও। দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক অনুমান, নিজের স্বয়ংক্রিয় সার্ভিস রাইফেল থেকে গুলি করে আত্মহত্যা করেছেন বিএসএফ-র ৯৪ নম্বর ব্যাটেলিয়নের জওয়ান কেদারনাথ হাঁসদা। কিন্তু কেন? তদন্তে নেমেছে চোপড়া থানার পুলিশ ও বিএসএফ।