উত্তম দত্ত, হুগলি: পরীক্ষার বাকি আর মাত্র একদিন। অ্যাডমিট কার্ড আনতে গিয়ে নিখোঁজ নিট পরীক্ষার্থী। তাঁর সাইকেলটির হদিশ মিলেছে গঙ্গার ঘাটে।  ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হুগলির কোন্নগরে। উদ্বেগ বাড়ছে পরিবারের লোকেদের।

আরও পড়ুন: লকডাউন হচ্ছে না ১২ সেপ্টেম্বর, টুইট করে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

বাবা পেশায় কলকাতা পুলিশের কর্মী। কোন্নগরের বিদিশা হাউজিং-এর বাসিন্দা অভিক মণ্ডল। ছোট থেকে মেধাবী ছাত্র ছিলেন তিনি। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, ডাক্তার হয়ে মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চেয়েছিলেন তিনি।  দিনরাত এক করে প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ডাক্তারি সর্বভারতীয় প্রবেশিকা পরীক্ষা বা নিট-এর জন্য। আশা ছিল, পরীক্ষা পাশও করে যাবেন। কিন্তু কোথায় থেকে কি যে হয়ে গেল, বুঝতে পারছেন না কেউই।

আরও পড়ুন: তোলাবাজি থেকে রেহাই পেলেন না খোদ দলীয়কর্মী, চাঞ্চল্যকর অভিযোগ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে

পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড আনার জন্য সাইকেলে চেপে এলাকার একটি সাইবার ক্যাফে যান অভীক। এরপর রাত ন'টাতেও যখন তিনি ফিরলেন না, তখন দুঃশ্চিন্তা বাড়তে থাকে বাবা-মায়ের।  চারিদিকে ছেলের খোঁজখবর করতে শুরু করেন তাঁরা। গভীর রাতে অভিকের সাইকেলটি হদিশ মেলে কোন্ননগরের গঙ্গার ঘাটে। এরপর উত্তরপাড়া থানায় অভিকের নামে নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়। কোথায় গেলেন তিনি? ঘনাচ্ছে রহস্য। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন.  অভীকের পরীক্ষা সিট পড়েছিল কলকাতার মিন্টো পার্ক এলাকার একটি স্কুলে। মঙ্গলবার যখন অ্যাডমিট কার্ড আনতে যাচ্ছিলেন, ছেলের সঙ্গে যেতে চেয়েছিলেন অভীকের মা।  কিন্তু তাঁকে সঙ্গে নিয়ে চাননি ওই যুবক। বাড়িতে বলে যান, মিনিট পনেরোর মধ্যেই ফিরে আসবেন। ফোনটিও বাড়িতে রেখে যান অভিক। এমনকী, বেরোনোর আগে মোবাইল থেকে ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ ডিলিট করে যান তিনি। তাহলে পরীক্ষার ভয়ে বাড়ি ছাড়লেন মেধাবী পড়ুয়াটি? দানা বাঁধছে সন্দেহ।