এটিএমে ঢুকে কি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করছিলেন? চোর সন্দেহে ফের গণপিটুনির শিকার হলেন ভিনরাজ্যের এক যুবক। কার্যত মরণাপন্ন অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মুর্শিদাবাদের নারায়ণপুরে।

আরও পড়ুন: সন্তান না হওয়ার 'মাশুল', শ্বশুরবাড়িতে মিলল গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ

ঘটনার সূত্রপাত শনিবার সকালে। নারায়ণপুরের পলসনডাঙা এলাকায় একটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের এটিএম কাউন্টারে ঢুকে পড়ে রঞ্জিত নামে এক যুবক। শুধু তাই নয়, এটিএম ভিতরেই এক গ্রাহকের কার্ডটিও তিনি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। ব্যাস আর যায় কোথায়! চিৎকার শুনে এটিএমের সামনে জড়ো হন আশেপাশের লোকজন। চোর সন্দেহে টেনে হিঁচড়ে বাইরে বের করে ওই যুবককে বেধড়়ক মারধর করতে শুরু করেন তাঁরা। কিল-চড়-ঘুষি, বাদ যায়নি কিছুই। শেষপর্যন্ত খবর যখন পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়, ততক্ষণে আক্রান্ত যুবকের কার্যত মরণাপন্ন অবস্থা। তাঁকে উদ্ধার করা ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। 

আরও পড়ুন: স্বামীর মোবাইলে 'অশ্লীল ছবি', প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, আক্রান্ত যুবক এ রাজ্যের বাসিন্দা নন। ভিনরাজ্য কোনওভাবে চলে এসেছেন মুর্শিদাবাদে। এরপর শনিবার সকালে নারায়ণপুরের ওই রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের এটিএমে ঢুকে পড়েন তিনি। কিন্তু সত্যিই কি গ্রাহকে এটিএম কার্ডটি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছিলেন? এখনও পর্যন্ত থানায় লিখিত কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।