আগামী মার্চ মাসের ২০ তারিখ জম্মু থেকে বাড়ি আসার কথা ছিল কাঁচরাপাড়ার বাসিন্দা সেনা বাহিনীতে কর্মরত সায়ন ঘোষের। কিন্তু তার আগেই সায়নের নিথর দেহ আসছে বাড়িতে। এই খবর পৌঁছতেই ঐ জওয়ানের পরিবার তথা এলাকার মানুষ  কান্নায় ভেঙে পড়েছে।

আরও পড়ুন, 'চিনি না', অভিষেক ইস্যুর পর আজ রাকেশকে আদালতে তুলতেই প্রতিক্রিয়া ফিরহাদের 

 

বন্দুক চালানো প্রশিক্ষণ চলাকালীন বন্দুকের ব্যারেল বিস্ফোরণে মঙ্গলবার মৃত্যু হয়েছে জম্মুর ৭৩ নাম্বার ব্যাটিলিয়নের জওয়ান সায়ন ঘোষের। মৃত জাওয়ানের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুর থানার অন্তর্গত কাঁম্পা পঞ্চায়েতের নাগদা গ্রামে। মাত্র ২ বছর হয়েছে সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিল সায়ন।বাবা অবসরপ্রাপ্ত বিএসএফ কর্মীর একমাত্র ছেলে। এদিকে সামনেই ২০২১ এর ভোট। যা নিয়ে সরগরম রাজ্য-রাজনীতি। ইতিমধ্য়েই ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশ না হলেও বাংলায় এসে পৌছেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। আর এদিকে বাড়ি ফিরে ভোট দেওয়া, প্রিয়জনদের পরশ নেওয়া আর হল না সায়নের। মঙ্গলবার রাতে এই খবর পৌঁছতেই ঐ জওয়ানের পরিবার তথা এলাকার মানুষ  কান্নায় ভেঙে পড়েছে।

আরও পড়ুন, 'তৃণমূল তোলাবাজ হলে দাঙ্গাবাজ BJP', মোদীর সভার পাল্টা আক্রমণ মমতার  


আত্মীয় পরিজন থেকে এলাকাবাসীর দাবী এই ঘটনার পিছনে আসল কারনটা কি, কোথাও উদাসীনতা হয়নি তো, ফুটফুটে ২২ বছরের ছেলে এভাবে প্রশিক্ষণের সময় প্রান হারাল তা মানতে পারছে না কেউই। তবে এই বিষয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি কর্তৃপক্ষের তরফে।

 

আরও পড়ুন, 'কোল ইন্ডিয়া বন্ধ কী কারনে-কৃষকরা রাস্তায় কেন ', মোদীকে পাল্টা প্রশ্ন মমতার