রেশন দুর্নীতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় 'ভুল তথ্য' পোস্ট করেছেন তিনি। ফোনে কটু কথা শুনিয়েছেন তৃণমূল বিধায়ককেও! দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিষ্ণুপুরে বিজেপি-র জেলা সহ-সভাপতিকে গ্রেফতার করল পুলিশ। 

আরও পড়ুন: ডিজিটাল কার্ড ছাড়াই এবার মিলবে রেশন, বড় সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের

করোনা নিয়ে তথ্য গোপন, পরিবারের অগোচরে মৃতদেহ দাহ করার মতো অভিযোগ তো ছিলই। লকডাউনের বাজারে রেশনেও কি কারচুরি চলছে? রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সাধারণ মানুষের বিক্ষোভে বিড়ম্বনায় পড়েছে সরকার। এই ইস্যুকে হাতিয়ার করে শাসকদলের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, রেশনের সামগ্রী, এমনকী ত্রাণের জন্য বরাদ্দ চালও লুট করছেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা-মন্ত্রীরাই। দিন কয়েক আগে রেশনে দুর্নীতির অভিযোগে বাড়িতে প্রতীকী মৌন অবস্থানও করেছেন দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়,সায়ন্তন বসু, লকেট চট্টোপাধ্যায়।
 

আরও পড়ুন: সর্বকালীন রেকর্ড ভেঙে দিল লকডাউনে মদ বিক্রির প্রথম ৩দিন, তাও অনলাইন চাইছেন না মালিকরা

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিষ্ণুপুরের গাববেড়িয়া ও রসখালী রেশন দোকানের সামনে দলের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি-র জেলা সহ-সভাপতি সুফল ঘাঁটুর। গলায় কাট-আউট ঝুলিয়ে শ্লোগান দেন তিনি। এমনকী, রেশন বিলি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুল তথ্য পোস্ট করেন বলেও অভিযোগ। স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক দিলীপ মণ্ডলের আবার দাবি, ফোনে তাঁকে আশ্রাব্য গালিগালাজও করেছেন সুফল। বিষ্ণুপুর থানায় এফআইআর করেন বিধায়ক। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বিজেপি-র বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সহ-সভাপতি সুফল ঘাঁটুর-সহ দু'জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।