Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Farm law Repeal: আচমকা কৃষি আইন প্রত্যাহারে ক্ষোভ, বিজেপি ছাড়ার হিড়িক এই জেলায়

জেলা বিজেপির সহ সভাপতি শিবু পানিগ্রাহী শুক্রবার দুপুরে সোশ্যাল সাইটে তার নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। শীর্ষ নেতৃত্বদের সিদ্ধান্ত যে নিচু স্তরের কর্মীদের কাছে বিড়ম্বনা, তা তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন নিজের বক্তব্যে। 

BJP workers from West Midnapore left the party angry over repeal of PM Modi s Farm law bsm
Author
Kolkata, First Published Nov 20, 2021, 9:35 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

মেদিনীপুর, বিধানসভা নির্বাচনের আগে থেকে পশ্চিম মেদিনীপুর (West Midnapur) জেলাতেও এন আর সি (NRC), সি এ এ (CAA) মতো কৃষি আইন (Farm Law)এর যৌক্তিকতা নিয়ে বিভিন্ন সভা-সমাবেশ করেছিল বিজেপি (BJP)। স্থানীয়  বিজেপি নেতা কর্মীরা কৃষি আইনের পক্ষে সওয়াল করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শুক্রবার আচমকাই নতুন তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করেন। এই ঘটনায়  হতাশ হয়ে দলের শীর্ষ নেতাদের ওপর ক্ষোভ উগরে দিলেন এক দল বিজেপি নেতা। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা বিজেপির সহ-সভাপতি শিবু পানিগ্রাহী এর সাথে সাথে বিভিন্ন দল থেকে আসা একঝাঁক দায়িত্ব প্রাপ্ত বিজেপি নেতাকর্মীরা দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করলেন প্রকাশ্যে ৷ অনেকেই ক্ষোভ উগরে দিলেন সোশ্যাল সাইটে ৷  

জেলা বিজেপির সহ সভাপতি শিবু পানিগ্রাহী শুক্রবার দুপুরে সোশ্যাল সাইটে তার নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। শীর্ষ নেতৃত্বদের সিদ্ধান্ত যে নিচু স্তরের কর্মীদের কাছে বিড়ম্বনা, তা তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন নিজের বক্তব্যে।  তিনি বলেন, আমাদের মতো জেলা নেতাদের দ্বিতীয় বার আর কেন্দ্রীয় প্রকল্প নিয়ে বক্তব্য রাখার জায়গা রইল না। এমনিতেই এনআরসি এবং সিএএ আইন হিমঘরে চলে গেছে৷ আরও একটি আইন প্রত্যাহার করা হল। পরবর্তীকালে আরও কোন কিছু প্রত্যাহার করতে পারেন। ফলে আমরা নিশ্চিন্তে কোন কিছু নিয়ে বক্তব্য রাখার মত অবস্থায় আর রইলাম না।

BJP workers from West Midnapore left the party angry over repeal of PM Modi s Farm law bsm

দীর্ঘ দিন বাম সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন সুবোধ বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচনের আগে তিনি বিজপিতে যোগ দিয়েছিলেন ৷ তিনি  শালবনী দক্ষিণ মণ্ডলের পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ করেছেন সেই থেকে ৷ কিন্তু প্রবীণ এই নেতার কাছেও প্রধানমন্ত্রী মোদীর এই সিদ্ধান্ত সমস্যা তৈরি করেছে ৷ তিনি বলেন- বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা মানুষের এখানকার প্রয়োজনীয়তা বোঝেন না ৷ নিজেদের মতো করে পদ্ধতি তৈরি করে দেন ৷ পরে তা নিজেরাই বাতিল করেন ৷ সীদ্ধান্তহীনতায় ভোগে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা ৷ যা আমাদের নিচু স্তরে কাজ করার ক্ষেত্রকে সমস্যায় ফেলে দেয় ৷ কৃষি আইন প্রত্যাহার এমনই একটা দেরিতে নেওয়া সিদ্ধান্ত ৷ যা আমাদের মতো কর্মীদের মানুষের থেকে দুরে সরিয়ে দেয় ৷ তাই আমরা এই দল থেকে সরে দাঁড়ালাম ৷

Priyanka Gandhi: প্রিয়াঙ্কা কবিতা 'চোর', ভোটের আগেই কংগ্রেস নেত্রীর অস্বস্তি বাড়ালেন হিন্দি কবি

বিজেপির কিষান মোর্চার পশ্চিম মণ্ডল সভাপতি অনিমেষ ঘোড়াই বলেন-  কিষান মোর্চার নেতা হিসেবে আমি কৃষি আইন নিয়ে বিভিন্ন স্থানে মানুষকে বক্তব্যের দ্বারা বুঝিয়ে ছিলাম ৷ এনআরসি, সি এ এ নিয়েও অনেক কথা বলেছি মানুষকে ৷ বর্তমানে কৃষি আইন প্রত্যাহার করেছে সরকার ৷ এমনটাই করতে হলে অনেক আগেই করা দরকার ছিল ৷ তাহলে এতোগুলো লোক মারা যেতো না ৷ এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধীতা করছি ৷ এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের মতো ঘটনায় মানুষ আমাদেরকেই প্রত্যাহার করবে ৷ ভবিষ্যতে মানুষকে কি বোঝাবো আমরা বুঝতে পারছিনা ৷ এটা আমাদের কাছে লজ্জার ব্যাপার ৷ 

Defence Product: ৯০ শতাংশ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম তৈরি হবে দেশে, আশ্বাস দিলেন রাজনাথ সিং

তৃণমূলের মেদিনীপুর শহরের সভাপতি বিশ্বনাথ পান্ডব বলেন-নরেন্দ্র মোদী একজন মিথ্যাবাদী প্রধানমন্ত্রী ৷ বিজেপি কর্মীরাই আজ হতাশ ৷ ধর্মকে সামনে রেখে যারা আবেগে ভাসছিল, তারাও আজ বুঝতে পারলেন বিজেপি নামের দল ও সেই দলের প্রধানমন্ত্রী সব থেকে বেশি মিথ্যাবাদী ৷ প্রধানমন্ত্রীর ভুল বিদেশ নীতির কারনে প্রতিবেশী অনেক দেশই আমাদের দেশের বিরুদ্ধে একজোট হচ্ছে ৷ অর্থনৈতিক দিক থেকে আমরা পেছনে হাঁটছি মিথ্যাবাদী নরেন্দ্র মোদীর কারনে ৷ এতে বিজেপি কর্মীরা যেমন হতাশ, তেমনি আগামীদিনে হতাশ দেশবাসীও বিজেপিকে ত্যাগ করবে ৷ 

Priyanka Gandhi: প্রিয়াঙ্কা কবিতা 'চোর', ভোটের আগেই কংগ্রেস নেত্রীর অস্বস্তি বাড়ালেন হিন্দি কবি

এই প্রসঙ্গে বিজেপির জেলা সহ সভাপতি অরুপ দাস বলেন- যে সমস্ত নেতারা আজ হতাশা প্রকাশ করছেন তাঁরা বিজেপির কোনো অংশে নেই ৷ গত বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষনা হওয়ার পর থেকে আমাদের সক্রিয় কর্মীরা কাজ করছিলেন ৷ কিন্তু এই স্তরের একদল কর্মী নিজেদের বিজেপি থেকে সরিয়ে রেখেছিলেন ৷ দলের প্রকৃত বিজেপি কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যান নি ৷ এনআরসি ও সিএএ সারা দেশে লাগু হচ্ছে, এখানেও হবে ৷ টাটা-র ন্যানো এই রাজ্য ছেড়ে চলে যাওয়ার ফলে যেভাবে রাজ্যের কর্মসংস্থানে যুবক যুবতীদের ক্ষতি হয়েছে ৷ আজকের কৃষি আইন বাতিলের ফলে একই ভাবে ক্ষতি হবে চাষীদের ৷

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios