Asianet News BanglaAsianet News Bangla

বর্ধমানে শুধুই নিহত BJP কর্মীর বাড়িতে 'স্পট ভিজিট', CBI-র দেখা পেল না মৃত TMC কর্মীর পরিবার


ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্তে এবার পূর্ব বর্ধমানে সিবিআই-র বিশেষ দল। এদিন সিবিআই-র বিশেষ দল মৃত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে গেলেও ওই এলাকারই দুই তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে না যাওয়ায় বির্তক তৈরি হয়েছে।

CBI goes to BJP workers house in Purba Bardhaman   to investigate on post poll violence issue RTB
Author
Kolkata, First Published Aug 29, 2021, 5:59 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্তে এবার পূর্ব বর্ধমানে সিবিআই-র বিশেষ দল।  নির্বাচনের ফল বের হওয়ার পর জেলার জামালপুরে রাজনৈতিক সংঘর্ষে মারা যান কাকলি ক্ষেত্রপাল।  কাকলির বাড়ি জামালপুরের নবগ্রামের ষষ্ঠিতলায়। 

আরও পড়ুন, Coal Scam: কয়লাপাচার কাণ্ডে এবার সস্ত্রীক অভিষেককে তলব, দিল্লিতে ডেকে পাঠাল ED

রবিবার সিবিআই-র চার সদস্যের টিম এলাকায় যায়। তাঁরা মৃত কাকলি ক্ষেত্রপালের বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন।পাশাপাশি নবগ্রামের বাসিন্দা মামনি ক্ষেত্রপালের বাড়িতেও যায় সিবিআইয়ের টিম। কাকলি ক্ষেত্রপালের মৃত্যুর পর মামনি থানায় অভিযোগ করেন। পরিবার সূত্রে খবর, বিজেপি নেতা আশীষ ক্ষেত্রপালের মা মৃত কাকলী ক্ষেত্রপালের  মাথায় টাঙ্গির কোপ মারা হয়। জখম হয় তার বাবা অনিল ক্ষেত্রপাল। এদিন সিবিআই-র বিশেষ দল মৃত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে গেলেও ওই এলাকারই দুই তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে না যাওয়ায় বির্তক তৈরি হয়েছে। নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর ৩ বিজেপি কর্মী কাকলি ক্ষেত্রপালের পাশাপাশি দুই তৃণমূল সমর্থক শাজাহান শা ও বিভাষ বাগের মৃত্যু হয় রাজনৈতিক সংঘর্ষে।

আরও পড়ুন, CBI: 'ভাইপোর ১২ কোটির বাড়িটা কি গাছ কেটে এল', কয়লাকাণ্ডে বিস্ফোরক দিলীপ

অপরদিকে, ইতিমধ্য়েই  শনিবার ভোটপরবর্তী হিংসার তদন্তে বাংলায় প্রথম ২ জনকে গ্রেফতার করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। উল্লেখ্য নদিয়ার নিহত বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর মামলায় অসীমা ঘোষ এবং বিজয় ঘোষকে জিজ্ঞাসাবাদের পর খুনের ঘটনায় সরাসরি যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করেছে সিবিআই। প্রসঙ্গত, ১৪ মে নদিয়ার হৃদয়পুরে নিজের বাড়িতেই খুন হন বিজেপি কর্মী ধর্ম মণ্ডল। এক্ষেত্রেও সেই তৃণমূলের বিরুদ্ধেই অভিযোগ ওঠে।  দুষ্কৃতিরা বাড়িতে ঢুকে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ। আশঙ্কাজনক অবস্থা তাঁকে প্রথমে চাঁপড়া গ্রামীণ হাসপাতাল, পরে শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু অবস্থা শোচনীয় হওয়ায় শেষ পর্যন্ত তাঁকে কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে স্থানান্তিরিত করা হয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ১৬ মে মৃত্য়ু হয় তাঁর। পারিবারিক অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ পঞ্চায়েত সদস্য কালু শেখের নের্তৃত্বে ওই হামলা চললেও, তাঁকে এখনও গ্রেফতার করা হয়নি।

  আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের সর্বনিম্ন সংক্রমণ এই জেলায়, বৃষ্টিতে হারাতেই পারেন পুরুলিয়ার পাহাড়ে

আরও দেখুন, বৃষ্টিতে বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা 

আরও পড়ুন, বনগাঁ লোকাল নয়, জাপানে ঠেলা মেরে ট্রেনে তোলে প্রোফেশনাল পুশার, রইল পৃথিবীর আজব কাজের হদিস 

 CBI goes to BJP workers house in Purba Bardhaman   to investigate on post poll violence issue RTB

CBI goes to BJP workers house in Purba Bardhaman   to investigate on post poll violence issue RTB

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios