আদিবাসী সম্প্রদায়ের ভোটব্যাঙ্কে ভাঙন ধরবে না তো? বিধানসভা ভোটের মুখে এবার বীরসা মুন্ডার জন্মদিনে রাজ্যে ছুটি ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাঁকুড়ার খাতড়া এক জনসভায় সোমবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'আদিবাসীদের আবেগের কথা মাথায় রেখে বীরসা মুন্ডা জন্মদিনে ছুটি দেওয়া হবে।'

আরও পড়ুন: 'অনুগামী'র ডাকে সশরীরে হাজির 'দাদা', পুরুলিয়ায় জগদ্ধাত্রী পুজো উদ্বোধন শুভেন্দুর

বছর ঘুরলেই রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। শাসক-বিরোধী তরজায় নতুন করে প্রাসঙ্গিক হয়ে ঊঠলেন আদিবাসী নেতা বীরসা মুণ্ডা। কেন? নভেম্বরের গোড়ার দিকে দু'দিনের সফরে বাংলায় এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তখন বাঁকুড়ায় গিয়েছিলেন তিনি। পুয়াবাগান এলাকায় মাল্যদান করেছিলেন এক আদিবাসীর মূর্তি। বিজেপির দাবি, ওই মূর্তিটির বিরসা মুন্ডার। এই নিয়ে বিস্তর জলঘোলা হয় রাজ্য রাজনীতিতে। অমিত শাহ চলে যাওয়ার পর তৃণমূল দাবি করে, যে মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, সেই মূর্তিটি বীরসা মুন্ডার নয়! পুরুলিয়া-বাঁকুড়া রাজ্য সড়কের ধারে সৌন্দর্য্যায়নের জন্য ওই মডেলটি বসানো হয়েছে। শাসকদের দাবিকে সমর্থন করেন আদিবাসীদের একাংশও। আদিবাসী সমাজকে অপমানের অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ হয় এলাকায়। গঙ্গা জল দিয়ে মূর্তিটি শুদ্ধিকরণ করেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা।

আরও পডুন: 'লাভ জিহাদ' আইনের লক্ষ্য কি বাংলার নির্বাচন, বড় প্রশ্ন তুলে দিল বিজেপির পুরোনো সঙ্গী

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পর এবার বাঁকুড়া সফরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বস্তত, শেষবেলায় সফরসূচি বদল করে একদিন আগে, রবিবার রাতেই জেলায় পৌঁছন তিনি। রাতে ছিলেন মুকুটমণিপুরে সেচদপ্তরের বাংলোয়। সোমবার খাতড়া এক জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'যে মূর্তিতে মালা দেওয়া হয়েছিল, তা তো বিরসা মুন্ডারই নয়। এক আদিবাসী শিকারির। আমি শিকারি বলে তাকে ছোট করছি না, সেও আমার ভাই। কিন্তু এই মিথ্যাচারটা হল কেন?' এরপরই আদিবাসী নেতার জন্মদিনে রাজ্যে ছুটি ঘোষণা করেন তিনি। এই ঘোষণার পরেই উচ্ছ্বাসে ভাসেন উপস্থিত জনতা।