পঞ্চানন বর্মা জন্মদিবসেও পিছু ছাড়ল রাজনীতি। জন্মজয়ন্তী পালনেও ভোটের ব্যাঙ্ক ধরে রাখতে একগুচ্ছ প্রতিশ্রুতি দিল কংগ্রেস ও তৃণমূল। কার্যত দড়ি টানাটানি চলছে, এই ব্যক্তিত্বকে নিয়ে। এছাড়াও, এলাকার ছাত্রবাস, রাস্তাঘাট সহ অন্য়ান্য বিষয় নিয়েও প্রতিশ্রুতি দেয় দুই দল।

আরও পড়ুন-মকুলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ দীপকের, তৃণমূলে যোগ দিয়েই তুললেন টাকা নেওয়ার অভিযোগ

আজ মনীষী পঞ্চানন বর্মার ১৫৬ তম জন্মজয়ন্তী দিবস। রায়গঞ্জ ক্ষত্রিয় হোষ্টেলে যথাযোগ্য মর্যদার সঙ্গে দিনটি পালন করা হয়।  সেই অনুষ্ঠানে একই মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জের কংগ্রেস বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত, ছিলেন রায়গঞ্জ পৌরসভার পৌরপতি তথা তৃনমূল কংগ্রেসের মূখপাত্র সন্দীপ বিশ্বাস। দীর্ঘদিন যাবদ এই উকিলপাড়ায় ক্ষত্রিয় হোষ্টেল থাকলেও তা সংস্কারে কোন নেতা এগিয়ে আসে নি। বর্ষার সময় অল্প বৃষ্টিতে এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ে। শৌচালয় সহ একাধিক সমস্যায় জর্জরিত। ভোটের আগে এই অনুষ্ঠান। কোন রাজনৈতিক দলই পিছিয়ে পড়া রাজবংশী সম্প্রদায়ের মানুষের সমর্থন হাত ছাড়া করতে চাইছে না। বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত মঞ্চে বক্তব্যেই রাজবংশীদের মন পেতে তিনি ৩০ লক্ষ টাকা বিধায়ক উন্নয়ন তহবিল থেকে দেবার কথা ঘোষনা করেন। বিধানসভা নির্বাচনে তিনি জয়ী হলেই জেলা শাসকের মাধ্যমে এই ছাত্রাবাস উন্নয়ন করবেন।

আরও পড়ুন-দেবী দূর্গা নিয়ে দিলীপ ঘোষের বিতর্কিত মন্তব্যে উত্তাল রাজনীতি, মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ তৃণমূলের

রায়গঞ্জ পৌরসভার পৌরপতি তথা তৃনমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র সন্দীপ বিশ্বাস জানান, এই ছাত্রাবাস সহ আশপাশ এলাকা বর্ষায় জলমগ্ন হয়ে পড়ে।তাই দ্রুত এই এলাকাকে উচু করে আবাসিকদের হয়রানির হাত থেকে মুক্তি দেবেন।এছাড়াও পুরো এলাকা সৌন্দর্যায়ন, বিদ্যুতিকরন করা হবে। আবাসিকদের থাকার জন্য পর্যাপ্ত ভবন নির্মান করা হবে বলে সন্দীপবাবুও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। রাজনৈতিক দল যে প্রতিশ্রুতি দিক তাতে উচ্ছসিত নন হোষ্টেল কমিটি।  কমিটির সম্পাদক মানিক চন্দ্র রায় জানান, দীর্ঘদিন যাবদ এই ছাত্রবাস অবহেলার স্বীকার হয়েছে। বিধানসভা ভোট কড়া নাড়ছে। রাজবংশীদের মন পেতে এখন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে একাধিক প্রতিশ্রুতি দেওয়া হবে।ভোটের পর কে সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে সেটাই দেখার।