মিঠু সাহা, শিলিগুড়ি: করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না তো? বেসরকারি হাসপাতালে রোগীর মৃত্যুতে আতঙ্ক ছড়াল শিলিগুড়িতে। মৃতের লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে স্বাস্থ্য দপ্তর।

আরও পড়ুন: সন্তানকে দেখতে চাই, মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় কাতর আবেদন মায়ের

জানা গিয়েছে, যিনি মারা গিয়েছেন, তিনি থাকতেন দার্জিলিং-এর মংপু-তে। শ্রমিকের কাজ করতেন সিঙ্কোনা চা বাগানে। মঙ্গলবার সকালে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। শুরু হয় প্রবল শ্বাসকষ্ট। চা বাগানের ওই শ্রমিককে প্রথমে ভর্তি করা হয় রম্ভি এলাকায় সরকারি হাসপাতালে। কিন্তু উপসর্গ সন্দেহজনক হওয়ায় আর ঝুঁকি নেননি চিকিৎসকরা, রোগীকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় শিলিগুড়ি শহরের বেসরকারি হাসপাতালে। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। বৃহস্পতিবার ভোরে মারা যান ওই ব্যক্তি।

ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে শিলিগুড়ি শহরে। হাসপাতালের তরফে অবশ্য জানানো হয়েছে, মৃত ব্যক্তি কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন। তাঁর লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। সাধারণ মানুষকে অযথা আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন উত্তরবঙ্গে করোনা মোকাবিলায় দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক সুশান্ত কুমার রায়।

আরও পড়ুন: লকডাউন না মানার 'মাশুল', আচমকাই বজ্রপাতে প্রাণ গেল চারজনের

আরও পড়ুন: পুরসভায় জীবাণুনাশক সুড়ঙ্গে অনুব্রতের ছবি, বিতর্ক তুঙ্গে রামপুরহাটে

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাস থাবা বসিয়েছে উত্তরবঙ্গেও। সংক্রমিত হয়েছেন খোদ উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে এক চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ। কলকাতা থেকে বিশেষ বাসে শিলিগুড়িতে ফিরেছিলেন তিনি। দার্জিলিং জেলাকে 'রেডজোন' হিসেবে চিহ্নিত করেছে প্রশাসন।