Asianet News Bangla

"সরকারের ট্রেন-মেট্রো চালু করা উচিত, বোঝা কমবে" পেট্রোল-ডিজেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে মত দিলীপ ঘোষের

  • দু-একদিন অন্তরই বাড়ছে পেট্রল-ডিজেলের দাম
  •  দেশের বিভিন্ন জায়গায় পেট্রোলের দাম ১০০ ছাড়িয়েছে
  • জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরব হয়েছে বিরোধীরা
  • ট্রেন ও মেট্রো চালুর পরামর্শ দিলীপ ঘোষের
Dilip Ghosh says government should start train-metro service then burden will be reduced bmm
Author
Kolkata, First Published Jul 4, 2021, 5:20 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

প্রতি দু-একদিন অন্তরই পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়াচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি। ইতিমধ্যেই দেশের বিভিন্ন জায়গায় পেট্রোলের দাম ১০০ ছাড়িয়েছে। কোথাও আবার ১০০-র দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে রয়েছে। পিছিয়ে নেই কলকাতাও। এই পরিস্থিতিতে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরব হয়েছে বিরোধীরা। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখিয়েছে বাম-কংগ্রেস। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে টুইট করেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। আর এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের ট্রেন ও মেট্রো চালু করা উচিত বলে মনে করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। 

আরও পড়ুন- "অহংবোধ ছেড়ে সাধারণের দুর্দশার কথা ভাবুন", পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে মোদীকে আক্রমণ ফিরহাদের

আজ নিউটাউনের ইকোপার্কে প্রাতঃভ্রমণে গিয়ে তেলের মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "পেট্রোলের দাম বাড়ছে সেই জন্যই তো সরকারের ট্রেন চালু করা উচিত। মেট্রো চালু করা উচিত। যাতে সাধারণ মানুষের উপর চাপ কম আসে। পেট্রোল-ডিজেলের দাম তো আজ নয়, বাড়ছে অনেক বছর ধরে। কখনও বাড়ে আবার কখনও কমে।"

আরও পড়ুন- কলকাতায় সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় পেট্রোলের দাম, পিছিয়ে নেই ডিজেলও

রবিবার কলকাতায় সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে রয়েছে পেট্রোলের দাম। আজ লিটার প্রতি পেট্রোলের দাম ৩৯ পয়সা বেড়েছে। এর ফলে দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে লিটার প্রতি ৯৯ টাকা ৪৫ পয়সা। অন্যদিকে ডিজেলের দাম ২৩ পয়সা বেড়েছে। দাম বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২ টাকা ২৭ পয়সা। কলকাতাকে পিছনে ফেলে ইতিমধ্যেই রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় সেঞ্চুরি পার করেছে পেট্রোল। তার মধ্যে রয়েছে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, পুরুলিয়া, নদীয়া।  

আরও পড়ুন- ভোট গণনায় কারচুপির অভিযোগ, পুনর্গণনা চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ BJP প্রার্থী

অন্যদিকে, পুনর্গণনার আর্জি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন মানিকতলা বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি পার্থী কল্যাণ চৌবে। অভিযোগ, ভোট গণনায় কারচুপি হয়েছে। চূড়ান্ত ফলাফল স্পষ্ট করে ঘোষণা হয়নি। এই নিয়ে পুনর্গণনার আর্জি নিয়ে এখনও পর্যন্ত আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন বিজেপির মোট ৮ প্রার্থী। এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, "আমাদের অনেকেই যাঁদের মনে হয়েছে রেজাল্ট সঠিক হয়নি, তাঁরা ইলেকশন পিটিশন দাখিল করেছেন। তৃণমূলের লোকেরাও করেছেন। এটা একটা প্রক্রিয়া অনেকের মনে হয়েছে করা দরকার তাই করেছেন।"
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios