দিঘার সমুদ্র সৈকতে বসে সঙ্গে থাকা আমলা, আধিকারিকদের নিজে হাতে কেক খাইয়ে দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই কেক মুখে নিয়েই পায়ে হাত দিয়ে মমতাকে প্রণাম করছেন এক উর্দিধারী আইপিএস অফিসার। কর্তব্যরত অবস্থায় মুখ্যমন্ত্রীর পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করে বিতর্কে জড়ালেন আইজি পশ্চিমাঞ্চল রাজীব মিশ্র। 

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে পায়ে হাত দিয়ে আইপিএস অফিসার রাজীব মিশ্রের প্রণাম করার এই ভিডিও সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ভিডিও-টি দেখে বোঝা যাচ্ছে, দিঘার সমু্দ্র সৈকতে বসে হাল্কা মেজাজেই নিজের সঙ্গে থাকা আধিকারিক এবং সঙ্গীদের কেক খাইয়ে দিচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সময়ই কেক মুখে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর পায়ে দিয়ে প্রণাম করতে দেখা যায় আইপিএস অফিসার রাজীব মিশ্রকে। তখন তিনি উর্দি পরিহিত এবং কর্তব্যরত অবস্থায় থাকায় বিতর্ক আরও বাড়ে। সম্প্রতি পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সফরে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ভিডিও-টি ,সম্ভবত সেই সময়ে তোলা। যদিও এই ভিডিও-র সত্যতা যাচাই করতে পারেনি এশিয়ানেট নিউজ বাংলা। 

 

 

এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই সেটিকে অস্ত্র করে প্রচারে নামতে দেরি করেনি বিজেপি শিবির। এমনিতেই এ রাজ্যের পুলিশ দলদাসে পরিণত হয়েছে বলে বার বার অভিযোগ করেন বিজেপি নেতারা। বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় এই ভিডিও টুইট করে লিখেছেন, 'দিদির সামনে উর্দি নতমস্তক। পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের আইজি রাজীব মিশ্র উর্দি পরা অবস্থাতেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করছেন। এটা কেমন ব্যবস্থা এবং কেমন গণতন্ত্র?' তবে এই ঘটনায় এখনও রাজীব মিশ্রের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। 

ঘটনাচক্রে লোকসভা নির্বাচনের সময় এই রাজীব মিশ্রকেই কলকাতার পুলিশ কমিশনারের দায়িত্ব দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। পরে অবশ্য ভোট মিটতেই তাঁকে ওই পদ থেকে সরিয়ে দেয় রাজ্য সরকার। আর এ দিন মেয়ো রোডে টিএমসিপি প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে মমতা অভিযোগ করেন, কেন্দ্রীয় সরকার এখন আইপিএস- আইএএস অফিসারদের গায়েও হাত দিচ্ছে।