মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে হাতিয়ার করেই রাজ্য সরকারকে বিঁধল বিজেপি, বিষ্ণুপুরে চা-ঝালমুড়ি বিক্রি পদ্ম শিবিরের

| Sep 24 2022, 10:53 PM IST

মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে হাতিয়ার করেই রাজ্য সরকারকে বিঁধল বিজেপি, বিষ্ণুপুরে চা-ঝালমুড়ি বিক্রি পদ্ম শিবিরের
মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে হাতিয়ার করেই রাজ্য সরকারকে বিঁধল বিজেপি, বিষ্ণুপুরে চা-ঝালমুড়ি বিক্রি পদ্ম শিবিরের
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

সম্প্রতি ঘুগনি, ঝালমুড়ি, চা-এর দোকানের মধ্য দিয়ে কর্মসংস্থানের দিশা দেখিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের যুবদের চা-ঘুগনির দোকান দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি পুজোর মরশুমে কাশফুলের বালিশ বানিয়ে বিক্রি করারও পরামর্শ দিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে ঝালমুড়ি ও কাশফুলের দোকান দিল বিরোধীরা। এমনই দৃশ্য দেখা গেল বিষ্ণুপুরে। বিষ্ণুপুরের রবীন্দ্র স্ট্যাচু মোড়ে খোলা হল ঝালমুড়ি, ঘুগনির স্টল। মুখ্যমন্ত্রীর কথা অনুযায়ী থাকল কাশফুলও। ঘটনা ঘিরে রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। 

সম্প্রতি ঘুগনি, ঝালমুড়ি, চা-এর দোকানের মধ্য দিয়ে কর্মসংস্থানের দিশা দেখিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিমবঙ্গের যুবদের চা-ঘুগনির দোকান দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি পুজোর মরশুমে কাশফুলের বালিশ বানিয়ে বিক্রি করারও পরামর্শ দিয়েছেন।
 
মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যকে হাতিয়ার করেই এবার বিষ্ণুপুর রবীন্দ্র স্ট্যাচু মোরে ঝালমুড়ি ও কাশফুল বিক্রি করলেন বিজেপি কর্মীরা। অভিনব কায়দায় কটাক্ষ নজর কেড়েছে গোটা এলাকার। শনিবার এদিন বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির উদ্যোগে বিষ্ণুপুর রবীন্দ্র স্ট্যাচু মোরে বিজেপি কর্মীরা ঝালমুড়ি বিক্রি করলেন সঙ্গে ছিল ঘুগনি বিস্কুট এবং কাশফুল। সকাল থেকেই দোকানে ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। 

Subscribe to get breaking news alerts

আরও পড়ুন জলের তলা দিয়ে মেট্রো ছুটবে জুনে, হাওড়া-শিয়ালদহের যাত্রীরা কাউন্টডাউন শুরু করুন

প্রসঙ্গত, জোর মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় আরও একবার রাজ্যের তরুণ তরুণীদের  কর্মসংস্থানের জন্য নিজের পায়ে দাঁড়ানোর পরামর্শ দিলেন। তিনি  রাজ্যের বেকারদের চা-বিস্কুট, ঘুঘনি, তেলেভাজার ব্যবসা করার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, 'আমার কথা শুনে অনেকেই হাসেন বা টোন টিটকারি দেন। কিন্তু আপনি এই ব্যবসা করলে লাভ করবেন।' মমতা আরও বলেন, এক হাজার টাকা বিনিয়োগ করে একটা কেটলি কিনুন আর কয়েকটি মাটির ভাঁড় নিন। সঙ্গে কিছু বিস্কুট। ধীরে ধীরে এটা বাড়বে। প্রথম সপ্তাহে শুধু চা বিস্কুট বিক্রি করুন।  তার পরে সঙ্গে একটু ঘুগনি আর তেলেভাজা নিয়ে বসতে পারেন।   পুজোর আগেই যদু শুরু করতে পারেন তাহলে দেখবেন দিয়ে কোলাতে পারবেন না।  মমতা আরও বলেন কোনও কাজই ছোট নয়। পাশাপাশি এদিন তিনি কাশফুল দিয়ে লেপ বালিশ তৈরির পরামর্শও দিয়েছেন। 

আরও পড়ুন - যাত্রীদের গোলাপ ফুল দিয়ে স্বাগত, ইতিহাস রচনা করে যাত্রা শুরু শিয়ালদহ-সেক্টর ৫ মেট্রোর, সেরা ১০ ছবি

খড়গপুর স্টেডিয়ামে সরকারি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন টাটা স্টিলের ভাইস প্রেসিডেন্ট সঞ্জীব পাল। এদিনই টাটা মেটালিক্সের একটি নতুন ইউনিটের উদ্বোধন করেন মমতা। তিনি বলেন বলেন এখানে টাটা মেটালিক্স ৬৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। এখানে কয়েক হাজার মানুষ চাকরি পাবেন। এর আগেও একটি অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভুল করে টাটাদের বিনিয়োগের কথা বলে ছিলেন। যাইহোক এদিন মমতা জানিয়েছেন টাটাদের এই বিনিয়োগ রাজ্যের কর্ম সংস্থানের মানচিত্রে নতুন দিশা দেখাবে। 

আরও পড়ুন - ১৪ জুলাই ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো রুটে ইতিহাসের ক্ষণ, একই দিনে শিয়ালদহ থেকে ছুটছে ১০০ মেট্রো ট্রেন

Read more Articles on