বীরভূমে ধৃত জেএমবি জঙ্গির ল্যাপটপ থেকে বিস্ফোরক পেল কলকাতা পুলিশের এসটিএফ। এ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় জেএমবি জঙ্গি সংগঠনের স্লিপার সেল ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে বলে জানতে পেরেছে গোয়েন্দারা। বাংলায় জঙ্গি যোগে নতুন করে করে আশঙ্কার মেঘ দেখা দিয়েছে বিধানসভা ভোটের আগে। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় বীরভূমের পাইকর থানা এলাকা থেকে জেএমবি জঙ্গি নাজিবুল্লাকে গ্রেফতার করে কলকাতা পুলিশের এসটিএফ।

আরও পড়ুন-অবশেষে ট্রেন চলাচল শুরু হচ্ছে আদ্রা ডিভিশনে, পথ চলা শুরু প্যাসেঞ্জের-মেল ট্রেনের

জেএমবি জঙ্গি গ্রেফতারের পর, ধৃতের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছিল দুটি ল্যাপটপ, তিনটে স্মার্টফোন, এগারোটি পেনড্রাইভ সহ আরও বেশকিছু সামগ্রী। জেএমবি জঙ্গি নাজিবল্লার কাছ থেকে ওইসব জিনিসপত্র উদ্ধারের পর সেগুলিকে খতিয়ে দেখেন তদন্তকারীরা। সেখানেই চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় কলকাতা পুলিশের এসটিএফ। ল্যাপটপ ঘেঁটে তদন্তকারীরা জানতে পারে, সেখানে জঙ্গি সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের নাম রয়েছে। ওই সদস্যরা এ রাজ্যের স্লিপার সেন কিনা জানার চেষ্টা করছে তদন্তকারীরা। এছাড়াও, উদ্ধার হওয়া সরঞ্জাম ফরেন্সিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। 

আরও পড়ুন-এক 'ফ্রেমে' শুভেন্দু-রাজীব, 'দাদার অনুগামীর' নতুন পোস্টার ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

বীরভূমে ধৃত জেএমবি জঙ্গি নাজিবুল্লা বাংলায় বিধানসভা ভোটের আগে হামলার ছক করছিল না তার তদন্ত শুরু করেছে। বাংলায় জঙ্গি জাল নিয়ে তথ্য জানতে ধৃত নাজিবুল্লাকে জেরা করা চলছে। জানাগেছে, পাইকর থানা এলাকার ছাপাখানা লাগোয়া একটি ছোট্ট চায়ের দোকান রয়েছে নাজিবুল্লার। জঙ্গি যোগে তাকে গ্রেফতারের পর হতবাক স্থানীয় বাসিন্দারা।