উত্তম দত্ত, হুগলি: পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়েছেন স্ত্রী। ঘনিষ্ট অবস্থায় দেখে ফেলায় স্বামীকে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারল তার প্রেমিক! হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন আক্রান্ত ব্যক্তি। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির ত্রিবেণীতে। আক্রান্তের স্ত্রী, প্রেমিক, এমনকী, শাশুড়িকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: ছুটে এসে শুড়ে তুলে আছাড়, হাতির হামলায় গুরুতর জখম বৃদ্ধ

আক্রান্তের নাম অভিজিৎ সরকার। বাড়ি, ত্রিবেণীর মনসাতলায় এলাকায়। পেশায় তিনি দিনমজুর। দুই সন্তান ও স্ত্রী স্বপ্নাকে নিয়ে ভরা সংসার। বছর দশেকের দাম্পত্যজীবনে কি সুখ ছিল না? পুলিশ জানিয়েছে, বছর খানেক আগে হুগলিরই জিরাটের বাসিন্দা প্রবীণ বৈদ্য নামে এক যুবকের সঙ্গে বিবাহ-বর্হিভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন স্বপ্না। মাঝে একবার প্রেমিকের সঙ্গে বাড়ি ছেড়ে চলেও গিয়েছিলেন তিনি। তখন বুঝিয়ে-সুঝিয়ে স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনেন অভিজিৎ। সেটাই কি কাল হল? 

আরও পড়ুন: কীর্তিমান স্কুলশিক্ষক, চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে লক্ষাধিক প্রতারণার অভিযোগ

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে স্ত্রী ও তার প্রেমিক প্রবীণকে ঘনিষ্ট অবস্থায় দেখে ফেলেন অভিজিৎ। এরপর আর মেজাজ ঠিক রাখতে পারেননি তিনি। দু'জনের মধ্যে ধস্তাধস্তি চলাকালীন প্রবীণ ধারালো অস্ত্র দিয়ে অভিজিৎকে এলোপাথারি কোপ মারতে শুরু করে বলে অভিযোগ। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিয়ে লুটিয়ে পড়েন তিনি। শেষপর্যন্ত পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। গ্রেফতার করা হয় অভিজিতের স্ত্রী স্বপ্না ও শাশুড়িকে। পালানোর পথে ধরা পড়ে যায় মূল অভিযুক্ত প্রবীণও। আক্রান্তের শাশুড়িকে কেন গ্রেফতার করা হল? স্থানীয়দের দাবি, জামাই আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে মেয়ে বাড়িতে চলে আসেন তিনি। ঘর তখন রক্তে ভেসে যাচ্ছে। তড়িঘড়ি রক্তের মুছে ফেলে প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা করেন ওই মহিলা।