দিনেদুপুরে রাস্তায় দ্বিতীয় পক্ষের স্বামীর হাতে খুন হয়ে গেলেন এক মহিলা। ঘটনার পর আবার নিজেই থানায় গিয়ে আত্মসমপর্ণ করল অভিযুক্ত। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হুগলির চুঁচুড়ায়।

আরও পড়ুন: রেশন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় 'ভুল তথ্য' পোস্ট, গ্রেফতার বিজেপি-র সহ-সভাপতি

মৃতের নাম ছবি দে। তাঁর বাপের বাড়ি, চুঁচুড়ার সত্যপীরতলা এলাকায়। দীপঙ্কর দে নামে এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল ছবি-র। চুঁচুড়ারই বুড়োশিবতলা এলাকার বাসিন্দা ওই যুবক। কিন্তু সেই সম্পর্ক শেষপর্যন্ত আর টেকেনি। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত সুশান্ত মণ্ডলের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন ছবি। পালিয়ে গিয়ে দু'জনে সংসারও পাতেন অন্ধপ্রদেশে।  সব ঠিকঠাকই চলছিল। গোল বাঁধে চুঁচুড়ায় ফিরে আসার পর। 

জানা গিয়েছে, ইদানিং ফের প্রথম স্বামীর দীপঙ্করের সঙ্গে ঘনিষ্টতা বাড়ছিল ছবির। আর সেটাই মেনে নিতে পারেনি সুশান্ত। এই নিয়ে অশান্তিও হত।  শুক্রবার সকালে জুতো কিনতে গিয়েছিলেন দীপঙ্কর ও ছবি। ঘটনাটি জানতে পেরে যায় ওই মহিলার দ্বিতীয় স্বামীও। ছুরি হাতে নিয়ে বেরিয়ে পড়ে সে-ও। লকডাউনের জেরে চুঁচুড়ায় জেলাশাসকের অফিস চত্বর এখন শুনসান। সুযোগ বুঝে সেখানেই ছবি-কে তাঁর প্রথম স্বামীর সামনেই সুশান্ত গলার নলি কেটে খুন করে বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: বিশাখাপত্তনমে গ্যাস দুর্ঘটনা, বন্ধ কারখানাকে ঘিরে আতঙ্ক হলদিয়াতেও

এখানেই শেষ নয়। ঘটনার পর ছুরি হাতে সটান চূঁচুড়া থানায় চলে যায় অভিযুক্ত যুবক। আত্মসমপর্ণ করে সে। ঘটনার আকস্মিকতায় রীতিমতো হতবাক হয়ে যান পুলিশ আধিকারিকরা।  মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্তকে।