Asianet News BanglaAsianet News Bangla

“এ রাজ্যের অভাব যাবে না”, গ্রাম বাংলার ভাদু গান ফেসবুকে পোস্ট করে শাসকদলকে খোঁচা বিজেপির

কখনও “পার্থর কাছে অর্পিতা আছে”, কখনও “অনুব্রত বাবু, ভয়ে হল কাবু”, বাংলার প্রত্যন্ত গ্রামের ভাদু গানের সুরে কোমর দোলানো নাচকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় হাতিয়ার করল বিজেপি। পোস্ট করলেন রাজ্য সাধারণ সম্পাদক রথীন্দ্র বসু। 

Partha Chatterjee Arpita Mukherjee s scam caught in a Bhadu Song, BJP leader s post is now viral ANBSS 
Author
First Published Sep 19, 2022, 5:44 PM IST

“বিজেপি কর্মীরা তোমাদের ‘চোর’ বললে তোমরা লাঠি দিয়ে মারো, চামড়া দিয়ে জুতো বানানোর হুমকি দাও। পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ মানুষকেও হুমকি দেবে? দেখো গ্রামের ভাদু গানে ভেসে আসছে তোমাদের বিনাশের সুর।” ফেসবুক পোস্টে লিখলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক রথীন্দ্র বসু। তার সাথে পোস্ট করলেন একটি মজার ভিডিও। 

ভাইরাল হওয়া ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে বাংলার কোনও এক প্রত্যন্ত গ্রাম, যেখানে রং মেখে সঙ রূপে পুরুষ এবং মহিলা সেজে নাচছেন দুজন ব্যক্তি, আর তাঁদের ঘিরে জমায়েত হয়ে রয়েছে একটা গোটা এলাকার মানুষজন। দুই সঙের দলে রয়েছে আরও বেশ কয়েকজন। তাঁদের অনেকের হাতে বিভিন্ন ধরনের লোকগানের বাজনা, কয়েকজন আবার খালি গলাতেই গাইছেন একটা ভাদু গান। যে গানের কথাগুলির সঙ্গে স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন দুর্নীতিতে জড়িয়ে থাকা হেভিওয়েট নেতাদের নাম আর প্রত্যেক কলিতে জুড়ে রয়েছে টাকার কথা।

রথীন্দ্র বসুর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা ওই নাচের ভিডিওটির প্রথম লাইন হল, “পার্থবাবুর কাছে অর্পিতা আছে”, আবার পরবর্তী একটা লাইনে রয়েছে, “অনুব্রত বাবু, ভয়ে হল কাবু”। মাঝেমধ্যে কখনও রয়েছে, “একশো দিনের টাকা, হয়ে গেল ফাঁকা”, আবার কখনও “এ রাজ্যের অভাব যাবে না”। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, মাটির বাড়ি, মাটির উঠোন দিয়ে ঘেরা ওই এলাকায় একেবারে মেঠো সুরে গান গাইছেন আঞ্চলিক মানুষ, আশেপাশে নেই কোনও রাজনৈতিক দলের পতাকাও। বলা বাহুল্য, বারংবার তৃণমূল নেতাদের ‘চোর’ না বলার হুমকি পেয়ে পেয়ে বেশ ক্ষুব্ধ বিরোধী শিবির, প্রকাশ্যে শাসকদলের কোনও নেতার নামোল্লেখ করে কটূক্তি করতে পারছেন না বিজেপির নেতা-কর্মীরা। বাংলার দুর্নীতির প্রতিবাদে বিজেপির ‘নবান্ন চলো’ মিছিলও রাজ্য রাজনীতিতে খুব বেশি প্রভাব ফেলতে পারেনি। এবার এই অখ্যাত পল্লিগ্রামের অজানা অচেনা লোকশিল্পীদের গানকে হাতিয়ার করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘাসফুল শিবিরকে বিঁধলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক রথীন্দ্র বসু। 

 


ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার পর পদ্মশিবিরের দলীয় কর্মী-সমর্থকদের দ্বারা শেয়ারও হয়ে গেছে বেশ খানিকটা। ভিডিওটি দেখে বঙ্গের তাবড় নেতাদের টাকার অঙ্ক নিয়ে গ্রামবাংলার মানুষের মনের ধোঁয়াশা মেটাতে কী ব্যবস্থা নেয় শাসক শিবির, তা অবশ্য সময়ের অপেক্ষা।  

আরও পড়ুন-
নাবালিকাকে ৬ জন মিলে গণধর্ষণ! মধ্যপ্রদেশে অভিযোগ পেয়েই ৩ ধৃতের বাড়িতে বুলডোজার চালিয়ে দিল প্রশাসন
ইউটিউবের কমেন্টে প্রাণনাশের হুমকি, রহড়ায় প্রকাশ্য রাস্তায় ইউটিউবারদের মেরে কান ফাটিয়ে দিল দুষ্কৃতীরা
ডুরান্ড কাপ জেতালেন সুনীল ছেত্রী, অথচ তাঁকেই ছবি তোলার সময় ঠেলে সরিয়ে দিলেন রাজ্যপাল লা গণেশন!

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios