আশিষ মণ্ডল, বীরভূম: ফের এটিএমের ভল্ট ভেঙে টাকা লুটের চেষ্টা। তবে এবার আর শেষরক্ষা হল না। ধরা পড়ে গেল তিন দুষ্কৃতীরা। আর একজন পালিয়ে দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের রামপুরহাট শহরে।

আরও পড়ুন: পুলিশি তৎপরতায় প্রতারণার হাত থেকে বাঁচল কৃষক পরিবার, ধরা পড়ল মূল পাণ্ডা

বৃহস্পতিবার ভোরের ঘটনা। রামপুরহাট শহরের ডাকবাংলো মোড় এলাকায় একটি বেসরকারি ব্যাঙ্কের এটিএম-এ হানা দেন চারজন দুষ্কৃতীরা। এটিএম সেন্টারে ঢুকে যখন ভল্ট ভাঙার চেষ্টা করছিল, তখনই ঘটে বিপত্তি। বিকট শব্দে জেগে যান বাড়ির মালিক। এরপর বিপদ বুঝে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। কিন্তু রাস্তার ধারে থাকা সিসিটিভি দৌলতে শেষরক্ষা আর হল কই! যারা এটিএম থেকে টাকা লুট করতে এসেছিল, সিসিটিভি ফুটেশ দেখে তাদের শনাক্ত করে ফেলে পুলিশ।

আরও পড়ুন: অমিত শাহ রাজ্য ছাড়তেই হামলার মুখে বিজেপি কর্মীরা, কাঠগড়ায় তৃণমূল

ঘটনার সন্ধ্যায় স্থানীয় শ্রীকৃষ্ণপুর পাকুরিয়া গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয় রাহিবুল মোল্লা, ইয়াসিন শেখ ও সাহিন মোল্লাকে। আর এক অভিযুক্ত নাসিক শেখ অবশ্য পলাতক। শুক্রবার সকালে ধৃত তিনজনকে এটিএম-এর সামনে নিয়ে গিয়ে ঘটনার পুনর্নির্মাণ করে পুলিশ। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ধৃতদের বিরুদ্ধে একাধিক চুরি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ রয়েছে। এই প্রথম এটিএম লুটের চেষ্টা করল তারা। সিসিটিভি ফুটেজেই স্পষ্ট দেখা গিয়েছে, পায়ে হেঁটে ওই চারজন এটিএম আসে এবং বাড়ির মালিক জেগে যাওয়ার পর একইভাবে পালিয়েও যায় তারা।