মৌলিককান্তি মণ্ডল, নদিয়া:  কারও মুখে মাস্ক নেই, তো কেউ আবার প্রয়োজন ছাড়াই বেরিয়ে পড়েছেন বাড়ির বাইরে। লকডাউন কার্যকর করতে শনিবার দিনভর নদিয়া জেলা জুড়ে চলল পুলিশি অভিযান। গ্রেফতার করা হল ৬০ জনকে।

আরও পড়ুন: ছাত্রীমৃত্যুতে চোপড়ায় অশান্তি, বিজেপির জেলা সম্পাদককে গ্রেফতার করল পুলিশ

মার্চ মাস থেকে দফায় দফায় লকডাউন চলেছে টানা তিনমাস। মাঝে কিছুটা ছাড় দিতে গিয়ে ঘটেছে বিপত্তি। আনলক পর্বে রাজ্য়ের সর্বত্রই করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে আরও। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। পরিস্থিতি এমনই জায়গায় পৌঁছেছে যে, গোষ্ঠী সংক্রমণের কথা স্বীকার করে এবার সপ্তাহে দু'দিন লকডাউন ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। শনিবার ছিল দ্বিতীয় দিন।

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ ছড়াচ্ছে পুলিশমহলে, আক্রান্ত আসানসোল-দুর্গাপুরের পুলিশ কমিশনার

রাজ্যের অন্য জেলার মতো লকডাউনে ভালোই প্রভাব পড়েছিল নদিয়াতেও। জেলার সর্বত্রই শুনসান রাস্তাঘাট, বন্ধ ছিল দোকানপাঠ ও বাজারও। প্রতিটি থানায় চলেছে পুলিশের কড়া নজরদারি।  প্রয়োজন ছাড়া যাঁরা রাস্তায় বেরিয়েছিলেন, তাঁদের কড়া ব্য়বস্থা নিয়েছেন উর্দিধারীরা। মাস্ক না পরলেও রেয়াত করা হয়নি। কোথাও কান ধরে উঠবোস করতে হয় আইনভঙ্গকারীদের, তো কোথাও তাঁদের গ্রেফতারও করা হয়।

নদিয়ার পুলিশ সুপারজাফর আজমল কিদোয়াই জানিয়েছেন, লকডাউন দ্বিতীয় দিয়ে আইন ভঙ্গ করার অভিযোগে জেলায় ৬০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উল্লেখ্য, সাপ্তাহিক লকডাউনে প্রথমে দিনে, বৃহস্পতিবারও দিনভর পুলিশি ধরপাকড় চলে নদিয়া জেলাজুড়ে। সেদিন মাস্ক না পরা ও বাড়ির বাইরে বেরোনোর জন্য ৫০ জনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।