ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল বাসন্তী। এক তৃণমূল কর্মীর স্ত্রীকে গণধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগকে ঘিরে ছড়াল উত্তেজনা। অভিযোগের তির স্থানীয় যুব তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধেই। 

জানা গিয়েছে, শনিবার বাসন্তী থানার চড়াবিদ্যা গ্রাম পঞ্চায়েতের পেটুয়া এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। খবর পেয়ে রবিবার সকালে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে উপস্থিত হয়। দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। নিহতের স্বামী হাফিজুল শেখের দাবি, যুব তৃণমূলের জাফর শেখ, আবদুল শেখ, সফিক লস্কর সহ আরও অনেকে এই অপরাধের সঙ্গে জড়িত।  

আরও পড়ুন- এখন বিরোধিতা করছেন, 'এনআরসি'র দাবিতে স্পিকারের মুখে কাগজ ছুড়েছিলেন মমতা

প্রসঙ্গত, বিগত কয়েকদিন ধরে তৃণমূল কংগ্রেসের দুটি গোষ্ঠীর মধ্যে বিবাদের জেরে বাসন্তীর ওই এলাকা উত্তপ্ত। জানা যাচ্ছে, যুব তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তৃণমূল কর্মী হাফিজুল শেখের বাড়িতে আসে, যদিও বেশ কিছুদিন ধরেই আতঙ্কে ঘরছাড়া হাফিজুল। বাড়িতে এসে তার দেখা না পেয়ে হাফিজুলের স্ত্রীকে তারা গণধর্ষণ করে এবং তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে, এমনই অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের। যদিও যুব তৃণমূল নেতারা এই ঘটনায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে। তাদের মতে, হাফিজুলই তার স্ত্রীকে খুন করেছে। 

ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তে নেমে পড়েছে বাসন্তী থানার পুলিশ। তবে এখনও পর্যন্ত কাওকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলে জানা গিয়েছে।