ব্যস্ততা সত্ত্বেও মানুষের জীবনের সঙ্গে আপোষ নয়, কনভয় থামিয়ে অ্যাম্বুল্যান্সকে জায়গা দিতে বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

| Dec 02 2022, 09:26 AM IST

Mamata Banerjee

সংক্ষিপ্ত

হাসপাতালের উদ্দেশ্যে ছুটে যাওয়া রোগীকে নিজের চলার পথের আগে জায়গা ছেড়ে দিলেন তিনি। শাসক মহলে আরও একবার মানবিকতার নজির গড়লেন সচেতন মুখ্যমন্ত্রী। 

সুন্দরবন সফর সেরে ফেরার পথে আরও একবার জনদরদীর পরিচয় দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে চলাটা যাঁর স্বভাবগত, এর আগেও বহুবার যাঁকে দেখা গেছে নিজের গাড়ি থেকে দুর্গতদের উদ্ধারের কাজে স্বয়ং নেমে আসতে, বৃহস্পতিবার সেই সুযোগটি না পেলেও হাসপাতালের উদ্দেশ্যে ছুটে যাওয়া রোগীকে নিজের চলার পথের আগে জায়গা ছেড়ে দিলেন তিনি। শাসক মহলে আরও একবার মানবিকতার নজির গড়লেন সচেতন মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার সুন্দরবনের কর্মসূচি সেরে কোনা এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে ফিরে আসার সময় নিজের গাড়ির গতি কমিয়ে দিয়ে রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া অ্যাম্বুল্যান্স ও তার সঙ্গে থাকা আরও দুটি গাড়িকে যাওয়ার রাস্তা করে দিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়। পুলিশ সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশেই কনভয়ের গতি কমিয়ে পর পর তিনটি অ্যাম্বুল্যান্সকে যাওয়ার জায়গা ছেড়ে দেওয়া হয়।

Subscribe to get breaking news alerts

বৃহস্পতিবার দুপুরে দক্ষিণবঙ্গের হিঙ্গলগঞ্জ থেকে ফেরার পথে হেলিকপ্টারে ডুমুরজলা হেলিপ্যাডে নামেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সড়কপথে ড্রেনেজ ক্যানাল রোড হয়ে হ্যাংস্যাং মোড় থেকে ঘুরে কোনা এক্সপ্রেসওয়ে ধরে নবান্নের দিকে রওনা হয় তাঁর কনভয়। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হ্যাংস্যাং মোড়ের কাছে যখন মুখ্যমন্ত্রীর কনভয় পৌঁছেছে, ঠিক তখনই দেখা যায় কোনা এক্সপ্রেসওয়ে ধরে সাঁতরাগাছির দিক থেকে কলকাতার দিকে আসা তিনটি অ্যাম্বুল্যান্স কনভয়ের পিছনে গেছে, সেক্ষেত্রে হাসপাতালে পৌঁছতে রোগীর যথেষ্ট দেরি হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু, হ্যাংস্যাং মোড়ের কাছে কমিয়ে দেওয়া হয় মুখ্যমন্ত্রীর গাড়ির গতি। হ্যাংস্যাং ক্রসিঙে দাঁড়িয়ে পড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়। অ্যাম্বুল্যান্সগুলিকে আগে ছেড়ে দেওয়া হয়।

হাওড়া সিটি পুলিশের এক কর্তার বক্তব্য অনুযায়ী, মুখ্যমন্ত্রী আগেই নির্দেশ দিয়ে দিয়েছিলেন যে, তাঁর কনভয় যাওয়ার জন্য যেন রাস্তায় কোনও অ্যাম্বুল্যান্সের গতি রোধ করা না হয়। সেই নির্দেশ মেনেই আগে ছেড়ে দেওয়া হয় রোগীবাহী গাড়ি, তারপর এগিয়ে যায় তাঁর কনভয়।

এই বিষয়টিকে উল্লেখ করে হাওড়া সদরের তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি, তথা ডোমজুড়ের বিধায়ক কল্যাণ ঘোষের বক্তব্য, ‘‌এইই হচ্ছেন আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কাছে যে বাংলার জনগণের স্থান সবার আগে, সেটা তিনি বারবার প্রমাণ করেন। আমরা গর্বিত এরকম একজন মুখ্যমন্ত্রীকে পেয়ে।’‌


আরও পড়ুন-
কোভিড ভ্যাকসিন নিয়ে তরুণীদের মৃত্যু হলেও তার জন্য সরকার দায়ী নয়: সুপ্রিম কোর্টকে জানাল কেন্দ্র
আগামী বছরের শুরুতেই জি ২০-র অতিথিরা আসছেন পশ্চিমবঙ্গে, মোদীর জরুরি বৈঠকে থাকছেন মমতা
পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে শীতের পথে বাধা, স্বাভাবিকের চেয়ে ওপরেই রইল অধিকাংশ জেলার তাপমাত্রা