Asianet News BanglaAsianet News Bangla

৩ সন্তানকে নিয়ে মরণঝাঁপ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উষ্ণ জলে স্ত্রীর, অভিযোগ উঠতেই ফেরার স্বামী

স্বামী-সতীনের অত্যাচারের হাত থেকে বাঁচতে তিন সন্তানকে নিয়ে মরণঝাঁপ তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের উষ্ণ জলে প্রথম পক্ষের স্ত্রীর। অত্যাচারের অভিযোগ উঠতেই গা-ঢাকা দিলেন করিৎকর্মা স্বামী। 

Wife jumps into hot water at thermal power plant with three children to escape torture RTB
Author
Kolkata, First Published Oct 20, 2021, 1:25 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

স্বামী-সতীনের অত্যাচারের ( Physical and Mental Torture) হাত থেকে বাঁচতে তিন সন্তানকে নিয়ে মরণঝাঁপ (Attempted suicide) তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের (Thermal power plant ) উষ্ণ জলে প্রথম পক্ষের স্ত্রীর। অত্যাচারের অভিযোগ উঠতেই গা-ঢাকা দিলেন করিৎকর্মা স্বামী।সতীন ও স্বামীর শারীরিক, মানসিক নির্যাতনের হাত থেকে নিজের তিন সন্তানকে রক্ষা করতে শেষ পর্যন্ত তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের  (Thermal power plant ) ফিডার ক্যানেল এর গরম জলে (Hot Water) মরণ ঝাঁপ দিলেন গৃহবধূ। ঘটনায় বুধবার মুর্শিদাবাদের  (Murshidabad) তিন পাকুরিয়া বাবুপুর এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়।

আরও পড়ুন, Gariahat Murder Case: গড়িয়াহাট জোড়া খুনের তদন্তে এখনও অধরা আততায়ী, ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য
জানা গিয়েছে, ওই মহিলার নাম রিনা বিবি। স্বামী সইদুর রহমান। বিয়ের পর স্বামীর সঙ্গে শ্বশুরবাড়ি  তিনপাকুড়িয়ার বাবুপুরে থাকতেন ওই দম্পতি। তাঁদের তিন সন্তান রয়েছে। অভিযোগ, সইদুর কোনওদিনই কাজকর্ম বিশেষ করতেন না। রিনাই বিড়ি বেঁধে সংসার চালাতেন। এদিকে স্বামী শহিদুর এরই মধ্যে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর সঙ্গেও বনিবনা ছিল না রিনার। নিত্যদিন শহিদুর ও তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর সঙ্গে রিনার অশান্তি লেগেই থাকত। সম্প্রতি তাঁর চরণে গিয়ে পৌঁছায় বলে অভিযোগ। এমনকি সইদুর ও তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী একজোট হয়ে মারধর করতেন রিনাকে। সেই অত্যাচার সহ্য করে না পেরেই বাধ্য হয়ে রিনা তার তিন সন্তান কে নিয়ে  ফিডার ক্যানালে ঝাঁপ দেন । স্থানীয়রা বিষয়টি দেখতে পাওয়ায় সঙ্গে সঙ্গে খবর দেয় পুলিশ।তড়িঘড়ি উদ্ধার কাজ শুরু হয়। শেষ পাওয়া খবরে জানা যায়  উদ্ধারকারীরা মহিলা ও তাঁর দুই সন্তানকে উদ্ধার করতে সক্ষম হলেও  হদিশ মেলেনি তাঁর পাঁচবছরের আরেক সন্তানের। এখনও তার খোঁজে চালানো হচ্ছে তল্লাশি। উদ্ধারের পরই মহিলা ও তাঁর সন্তানদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। বর্তমানে সেখানেই রয়েছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন, 'প্রয়োজনে বাংলাদেশে প্রতিনিধি দল পাঠাবে দিল্লি', হিংসাকাণ্ডে হুঁশিয়ারী নিথীথ-শুভেন্দুর

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সাংসারিক অশান্তি থেকে মুক্তি পেতেই সন্তানের নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন রিনা। রিনা বলেন,"এমন পথ আমি বাধ্য হয়ে বেছে নিয়েছিলাম প্রতিদিন আমার স্বামী ও তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী আমার ও আমাদের ৩সন্তানের ওপর নানান ভাবে নির্যাতন করতো তা থেকে রেহাই পেতেই ফিডার ক্যানেল এর জলে ঝাঁপ দিই সন্তানদের নিয়ে"। শহিদুর নামে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই গা-ঢাকা দিয়েছে করিতকর্মা স্বামী।

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios