কারখানা তো খুললই না, উল্টে সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিশ ঝুলিয়ে দেওয়া হল গেটে। ধৈর্য্য়ের বাঁধ ভাঙল শ্রমিকদের। তাণ্ডব চলল ওয়েভারলি জুটমিলে। আগুন লাগিয়ে দেওয়া হল দুটি গাড়িতেও। তুলকালাম কাণ্ড উত্তর ২৪ পরগর শ্যামনগরে।

আরও পড়ুন: পাঁচিল দিয়ে ঘিরে বাড়িতেই গাঁজা চাষ, হাতনাতে ধরা পড়ল অভিযুক্ত

আর্থিক মন্দার গ্রাসে পাটশিল্প। দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ শ্যামনগরের ওয়েভারলি জুটমিল। বেতন পাচ্ছেন বটে, তবে তা অনিয়মিত। বকেয়া টাকা মেটাতে গড়িমসি করছে কর্তৃপক্ষ। তেমনই দাবি করেছেন শ্রমিকরা। শুধু তাই নয়, সরকারি নির্দেশ অমান্য করে অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের পেনশনও দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ।  জানা গিয়েছে, অচলাবস্থা কাটাতে শ্রমিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল ওয়েভারলি জুটমিল কর্তৃপক্ষ। সেই বৈঠকে ঠিক হয়, শুক্রবার থেকে খুলবে চটকলটি। কিন্তু কোথায় কী!  সকালে কাজে এসে শ্রমিকরা দেখেন, কারখানার গেটে ঝুলছে সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিশ। এরপরই পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। 

আরও পড়ুন: কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে দুটি গণ্ডারের রহস্যমৃত্যু, অ্যানথ্র্যাক্স আতঙ্ক জলদাপাড়ায়

আরও পড়ুন: ক্রমেই চড়ছে তাপমাত্রার পারদ, সোমবার থেকে ফের বৃষ্টি বঙ্গে

জুটমিল বন্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন কয়েক হাজার শ্রমিক। কারখানার ভিতরে ঢুকে অফিসে ব্যাপক ভাঙচুর চালান তাঁরা। দুটি গাড়িতেও আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। বেশ কিছুক্ষণ ধরে অবরোধ চলে ওয়েভারলি জুটমিল লাগোয়া ঘোষপাড়া রোডে। সকালের ব্যস্ত সময়ে অবরোধ নাকাল হন নিত্যযাত্রীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় জগদ্দল থানার পুলিশ। পুলিশের আশ্বাসে শেষপর্যন্ত অবরোধ তুলে নেন বিক্ষোভকারীরা। কারখানা লাগোয়া  চত্বরে মোতায়েন প্রচুর পুলিশ।