ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য। তারপর তা নিয়ে ক্ষমাপ্রার্থী হওয়া, এখন আবার চুপিসারে তিন নম্বর বিয়ে সেরে ফেলা। একের পর এক শিরোনামে উঠে আসছে বাংলাদেশি গায়ক নোবেল। যাঁকে নিয়ে বাংলার সর্বোচ্চ সঙ্গীতের রিয়্যালিটি শো সারেগামা-এ চূড়ান্ত মাতামতি ছিল। তাঁর বিয়ের ছবি এখন রীতিমত ভাইরাল নেটদুনিয়ায়। জানা গিয়েছে, মেহরুবা সালসাবিল নামক এক তরুনীর সঙ্গে চুপিসারে বিয়ে সারলেন নোবেল। এ অবশ্য নোবেলের প্রথমবার নয়, বরং তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন বাংলাদেশি গায়ক।

আরও পড়ুনঃ'বিরাট কোহলির অনুষ্কাকে ডিভোর্স দেওয়া উচিত', ভিডিওতে বিস্ফোরক বিজেপি এমএলএ নন্দকিশোর

ঢাকার নিকেতনের ফ্ল্যাটে মেহরুবার সঙ্গে থাকছেন। খবরটি প্রকাশ্যে আসে নোবোলের আত্মীয়দের তরফ থেকে। প্রথম বিয়ে রিমি নামের একজনের সঙ্গে, যা দীর্ঘস্থায়ী হয়নি, রিমিই ছেড়ে চলে যান তাঁকে। তারপর নিজেরই এক আত্মীয়কে বিয়ে করেন নোবেল। সে বিয়েও না টেকার পর মেহরুবার দিকে ঝুঁকলেন গায়ক। এই নিয়েই এখন বিতর্ক তুঙ্গে। ভারতের অধিকাংশ নেটিজেনের কথায়, সবটাই পাব্লিসিটি স্টান্ট। লকডাউনের জেরে বিনোদনের জগতের ছোট খাটো তারকাদের নিয়ে কোনও খবর হচ্ছে না। চারিদিকে কেবল সোনু সুদের নাম উঠে আসছে শিরোনামে। 

আরও পড়ুনঃস্বস্তির খবর, হোম আইসোলেশনেই করোনা মুক্ত হলেন বলিউডের এই অভিনেতা

তাই নোবেল নাকি চেষ্টা করেন, তাঁকে নিয়েও যাতে একটু খবর হয়। নয়তো যে দেশে এসে তিনি এত ভালবাসা পেলেন, সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্বন্ধে এমন কুরুচিকর মন্তব্য করেন কীররে। যদিও পরে তিনি একটি ভিডিও আপলোড করে জানান, নিজের আগামী গানের জন্যই মোদিকে নিয়ে ওই স্টেটাস দেওয়া। গানটির নাম তামাশা। গানটির সঙ্গে পরিস্থিতির মিল রাখার জন্যই এতকিছু করেন নোবেল। কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করার কোনও উদ্দেশ্য ছিল না নোবেলের। সবটাই গানের প্রচারের কারণে করা। বলে ক্ষমা চান নোবেল। তবুও সকলের প্রশ্ন, গানের প্রচারের জন্য তো অন্য কিছুও করা যেত, এমন কুমন্তব্য করা কেন।