২০২০ একাধিক তারকা পতন দেখেছে ইতিমধ্যেই। বছর জুরে একের পর এক খারাপ খবরে মানুষ এখন জেরবার। সম্প্রতি এমনটাই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরেছেন খোদ অমিতাভ বচ্চন। একে একে উঠে আসা খারাপ খবর, মৃত্যু সংবাদ, তারকাদের স্বাস্থ্যের অবনতী সবই এক কথায় মানুষকে ভাবিয়ে তুলেছে। এবার সামনে উঠে এলো আরও এক ভয়াবহ খবর, মধ্য রাতেই নেট-পাড়ায় শোরগোল, প্রয়াত অভিনেতা চন্দন সেন, মুহূর্তে হতবাক সকলেই।

আরও পড়ুনঃ বিক্রমের প্রিয় মানুষের জন্মদিন, ইনস্টাগ্রামে ভেসে উঠল একাল সেকাল

অভিনেতাকে ঘিরে যখন একের পর এক পোস্ট ভাইরাল হতে শুরু করে তখনই তা নজরে আসে অভিনেতার। তিনি সুস্থই রয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর উড়িয়ে সকলের মনে স্বস্তি ফিরিয়েছেন নিজেই। নমস্কার আমি চন্দন সেন বলছি। যিনি আমার মৃত্যুর খবর রটিয়েছেন, তাঁকে প্রেতপুরীতে স্বাগত। কিছুক্ষণ আগে আমার মৃত্যুসংবাদ পাওয়া গিয়েছে। যিনি করেছেন তিনি রাতের ঘুমটার বারোটা বাজিয়ে খুব একটা ভাল কিছু করেননি। আবার দেখা হবে রাস্তায়, মিছিলে বা কোথাও একটা।

আরও পড়ুনঃ টোনড চেহারায় যশের পোস্ট, নেটদুনিয়ায় আগুন ধরালেন টলিউডের হাঙ্ক

আসল ঘটনাটি ঘটে ঠিক অন্য কারণ। এদিন সিপিএমের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআইয়ের রাজ্য সম্পাদক সায়নদীপ মিত্র একটি পোস্ট করেছিলেন, যেখানে তিনি চন্দন দাকে শ্রদ্ধা জানান। তবে এই চন্দন দা হলেন ডিওয়াইএফআইয়ের মুখপত্র ‘যুবশক্তি’ পত্রিকার দফতরের অন্যতম সদস্য, যিনি নিজেই সব কাজ সামলাতেন। তাঁর মৃত্যুতেই এই শ্রদ্ধাজ্ঞাপন, যা মুহূর্তে পরিণত হয়েছিল অভিনেতা চন্দন সেনের মৃত্যু সংবাদে।