Asianet News BanglaAsianet News Bangla

কিভাবে সন্তান জন্মানোর তিন মাসের মধ্যেই ছিপছিপে হয়ে গিয়েছিলেন নুসরত এবার খোলসা করলেন তিনি

প্রেগন্যান্সি পরবর্তী ফ্যাট কমানো চাট্টি খানি কথা নয়। তাও আবার মাত্র তিন মাসের মধ্যে। কী করে করেছিলেন এমন অসাধ্য সাধন জানালেন নুসরত জাহান।

Nusrat revealed how she loose her pregnancy fat within three months of giving birth anbsd
Author
Kolkata, First Published Jul 20, 2022, 12:25 PM IST

গতবছরের এই সময়টায় বাংলার সমস্ত মিডিয়া চ্যানেল গুলো উত্তাল হয়েছিল যশ নুসরতের সন্তানকে নিয়ে। বহু ট্রোল, বিতর্ক পেরিয়ে এক বছর কেটে গিয়েছে। প্রেগন্যান্সির মেদ কমানো মোটেই সহজ ব্যাপার নয়। কিন্তু নুসরত জাহান তা যেনো তুড়িতেই কমিয়ে ফেলেছিলেন। সন্তান জন্মানোর আগে তার ওজন ছিল ৪৭ কেজি আর প্রেগন্যান্সির আট মাসের মাথায় তা গিয়ে দাঁড়ায় ৭৫ এ। সেই ৭৫ কেজি কমিয়ে ফেলবার পাশাপাশি নুসরত এখন আগের চেয়েও বেশি ফিট। এমনটা সম্ভব হলো কিভাবে? নুসরত কিন্তু সমস্ত ক্রেডিটটাই তার বর যশ দাশগুপ্তকে দিয়েছেন। অভিনেত্রীর কথায়, ' আসলে ওই সময়টা পুরোদমে উপভোগ করেছি। ছেলে জন্মের  পরই কাজে যোগ দি তাতে রাজি ছিলেন না যশ ও আমার মা-বাবা। ওদের মনে হয়েছিল আমি নিজের স্বাস্থ্যের কথা ভাবছি না। তবে আমার কাছে আমার মানিসক স্বাস্থ্যটা বেশি জরুরি ছিল। আসলে প্রথমে অল্প সময়ের জন্য কাজ করতে শুরু করি। তাই কাজে যেতাম, ফিরে এসে সন্তানকে খাওয়াতাম, ফের কাজে যেতাম। এটা আমার চ্যালেঞ্জিং ছিল তবে অসম্ভব নয়, এইভাবে আমি প্রসব-পরবর্তী ডিপ্রেশনের কাছে হার মানিনি।' 


সন্তান জন্ম দেওয়ার মাত্র তিন মাসের মাথায় সমস্ত ফ্যাট ঝরিয়ে ফেলা প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেছেন, 'আমার ওজন ছিল ৪৭ কেজি যখন আমি অন্তঃসত্ত্বা হই। আর যখন আমি আট মাসের গর্ভবতী তখন আমার ওজন ছিল ৭৫ কেজি! এই সময় ‘ক্রেজি’ হরমোনের পাল্লায় পরি। যার ফলে সারাক্ষণ আমি যশকে দুশতাম যে তোমার জন্যই আমার ওজন বেড়েছে। তবে যশ কথা দিয়েছিল চিকিৎসক যখন রাজি হবে ওয়ার্ক করতে আমাকে পুণরায় শেপে ফিরিয়ে দেবে ও। এখন আমি গর্ব করে বলতে পারি , আগের চেয়েও অনেক বেশি শক্তিশালী আর ফিট আমি। আমরা একসঙ্গে ওয়ার্ক আউট করি, জিমটা আমাদের জীবনের বিরাট অংশ। যশ এটা নিশ্চই মানবে আমি ওঁর সবথেকে বাধ্য ছাত্রী।'

আরও পড়ুনঃ 

উত্তম কুমারের স্ত্রী হতে চলেছেন শ্রাবন্তী! কি প্রতিক্রিয়া অভিনেত্রীর?

মধুবালা-দিলীপ কুমারের ৭ বছর উদ্দাম প্রেম, ভেঙে গিয়েছিল এক লহমায়

রংবাজ-৩ এ বিনীত কুমারের বডি ট্রান্সফর্মেশন দেখেছেন কি?
অভিনেত্রী পার্টনার হিসেবে যশকে ১০ এ ১০ দিলেও বাবা হিসেবে যশকে নম্বর দিতে অস্বীকার করেন । তিনি বলেন 'আমার কাজ ভাগ করে নিয়েছি দুজনের মধ্যে, তেমন নিজেদের জন্য সময়ও ঠিক বার করে নি।' বর্তমানে বলিউডে পারি দেবার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন যশ। খুব শিগগির তাকে দিব্যা খোসলা কুমারের বিপরীতে বলিউডে ডেবিউ করতে দেখা যাবে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios