৭৪তম স্বাধীনতা দিবস। প্রতি বছরের মত আজ ১৫ অগাস্ট, বিশেষ দিনের মধ্যে একটি। বরাবরের মত দেশের জনগণের উপস্থিত থাকার কথা ছিল আজকের দিনের উদযাপনে। তবে ২০২০-র গোটা চিত্রটাই ভিন্ন। মৃত্যুর মিছিল তৈরি হয়েছে দেশে, করোনার প্রকোপে ক্রমশ বাড়ছে সংক্রমণের হার। একে অপরের দেখা সাক্ষাৎ যেন এক ভের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারমে আমূল পরিবর্তন এসেছে আমাদের জীবনে। হয়তো তিন মাস থাকবে এই ভাইরাসের প্রকোপ। এমনটাই ভেবেছিল দেশের মানুষ। তা আর হল কই। 

আরও পড়ুনঃহেমা মালিনীর নাচ, শ্রেয়ার সুর, ৭৪তম স্বাধীনত দিবসে ভিন্ন ধারার 'বন্দে মাতরম'

জীবনের গোটা সংজ্ঞাটাই বদলে দিয়ে রীতিমত জাঁকিয়ে বসে আছে ভাইরাস। এবং এতেই সাংঘাতিক ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশের কোটি কোটি মানুষ। কোভিডে কেউ হারিয়েছে প্রিয়জনকে। আবার লকডাউনের কারণে চাকরিহারা হয়েছে অসংখ্য দেশবাসী। দেশের অর্থনীতির তলানিতে ঠেকেছে। দেশে মহামারী যে রূপ ধারণ করেছে তাতে যেকোনও বিশেষ দিনের মাহাত্য হারাতে বসেছিল। 

আরও পড়ুনঃনীল-তৃণার বিশেষ শুভেচ্ছাবার্তা, দেবলীনাও সামিল স্বাধীনতা দিবসের উদযাপনে

 

সেই গুরুত্ব বাড়িয়ে তুললেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি স্বাধীনতা সংগ্রামীদের ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, "যাঁরা দেশকে পরাধীনতার কবল থেকে মুক্তির জন্য নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেছেন। এবং যাঁরা প্রতিনিয়ত দেশকে রক্ষা করে চলেছেন, তাঁরা আজবীন আমাদের অন্তরে চিরবন্দিত এবং চিরস্মরণীয় হয়ে বেঁচে থাকবেন।" এভাবেই ৭৪তমল স্বাধীনতা দিবসে আবেগঘন হয়ে উঠলেন প্রসেনজিৎ।