করোনার প্রকোপ কাটলে কীভাবে হবে ফিল্মের ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শ্যুটিং। একে অপরের কাছে আসতে যেখানে ভয় পাচ্ছে সকলে, সেখানে ঘনিষ্ঠ দৃশ্য শ্যুট করা খুবই মুশকিল। এমনই বিষয় নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করলেন পরিচালক সুজিত সরকার। ইনস্টাগ্রামে বিষয়টি নিয়ে একটি পোস্ট করেছেন তিনি। 

আরও পড়ুনঃকরোনা যোদ্ধাকে নিয়ে সাক্ষাৎকার, সতর্কবার্তা নিয়ে কার্তিকের নয়া উদ্যোগ

যেখানে দিয়া মিরজা লিখেছেন, কেবল ঘনিষ্ঠ দৃশ্য নয়, একটা ফিল্মের শ্যুটিং সকলে মিলেমিশে করে, সেখানে সোশ্যাল ডিস্টেন্সিংয়ের চক্করে সকলেই একে অপরের সঙ্গে সামান্য কাছাকাছি বসেও কাজ করতে ভয় পাবে। ফিল্মের গোচা কাস্ট এবং ক্রিউকে গ্লাভস, মাস্ক পরিয়ে কাজ করানো সম্ভব। অধিকাংশ নেটিজেনই দিয়ার এই মন্তব্যের সমর্থন করেছে। প্রসঙ্গত করোনা আতঙ্কে দিন কাটছে বিশ্ববাসীর। ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ছাঁড়াতে চলেছে আট হাজার। সরকারের লকডাউনের সময়সীমা বাড়িয়ে করেছে হয়েছে একুশ দিন। 

আরও পড়ুনঃবলিউডে পা রেখেই প্রতারণার শিকার নোরা, আজও মেলেনি প্রাপ্য ২০ লক্ষ টাকা

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

“Intimate scenes “

A post shared by Shoojit Sircar (@shoojitsircar) on Apr 10, 2020 at 6:13am PDT

তবে আরও বাড়তে পারে লকডাউনের সময়সীমা। এপ্রিলের ৩০ তারিখ পর্যন্ত চলতে পারে লকডাউন। লকডাউনে মধ্যে দিনের পর দিন সতর্কবার্তা জারি করে চলেছে সরকার। সতর্ক করছেন তারকারাও। বিনোদন জগতের সকলেই সতর্ক করার এই বিষয় যথেষ্ট উদ্যোগ নিয়েছেন। নিত্যদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জনসাধারণকে লকডাউনের গুরুত্ব বোঝানোর চেষ্টা করছেন। তবে তার সঙ্গে চলছে বিনোদনের যোগানও। বলিউড তারকারা বাড়ির নানা ধরনের কাজ যেমন ঘর মোছা, ঝাড় দেওয়া, বাসন মাজা, এ সমস্ত কাজের ভিডিও করে পোস্ট করছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

আরও পড়ুনঃসাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

আরও পড়ুনঃকী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

আরও পড়ুনঃশরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা