ন্যাশানাল ক্রাশ, ইন্টারেন্ট সেনসেশন, ওভারনাইট সেনসেশন, সবরকমের ট্যাগই মিলে যায় দক্ষিণী অভিনেত্রী প্রিয়া প্রকাশ ভ্যারিয়ারের সঙ্গে। ওরু আদার লাভ ছবির চোখ মারার দৃশ্য থেকে জনপ্রিয়তা পান প্রিয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে নিমেষের মধ্যে। সেখান থেকে ছবিটি নিয়েও শুরু হয় চর্চা। রাতারাতি ভিডিওতে থাকা মেয়েটির নাম পরিচয়, কী করে সবকিছুই বের করে ফেলে নেটিজেনরা। প্রিয়া প্রকাশ ভ্যারিয়ার নামটি উঠে আসতেই ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুকে তাঁকে খোঁজাখুঁজি শুরু হয়ে যায়। বাড়তে থাকে ফলোয়াড়ের সংখ্যাও। সেখান থেকে সাত মিলিয়ন ফলোয়াড়স হয়ে গিয়েছিল তাঁর। 

আরও পড়ুনঃবাবার বিরুদ্ধে গিয়ে মিউজক ভিডিওর প্রস্তাবে রাজি হন শেফালি, মুহূর্তে জনপ্রিয় 'কাঁটা লাগা গার্ল'

২০১৮ সালো মোস্ট গুগল সেলেব্রিটির মধ্যে শীর্ষে নাম উঠে আসে প্রিয়ার। ছবিত প্রধান ভূমিকায় ছিলেন না তিনি, তবুও সেই একটি ক্লিপ তাঁকে জনপ্রিয় করে তোলে। সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট উড়িয়ে ফেলেছেন প্রিয়া। কেন এমনটা ঘটল। প্রশ্ন উঠছে ভক্তমহলে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যার জন্য তিনি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন, সেই সোশ্যাল মিডিয়াকে বিদায় জানালেন তিনি। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ডিঅ্যাক্টিভেট করার পর থেকেই বিভিন্ন প্রশ্ন উঠছে ভক্তদের মধ্যে। কারও কথায়, তিনি প্রাইভেসি চাইছেন, অথবা তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছেন।

আরও পড়ুনঃঅ্যাসিড হামলার প্রচার টিকটকে, বিজেপির এমএলএ ট্যুইটে ভিডিও পৌঁছল জাতীয় মহিলা কমিশনে, বিপাকে টিকটকার

আর এর পিছনে কারণ হল ট্রোলিং। নেটিজেনদের মতে, প্রিয়া ট্রোলিংয়ের কারণে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। যার কারণে তিনি নিজের প্রোফাইল ডিঅ্যাক্টিভেট করেছেন। এ কথা সত্যি যে তাঁকে নিয়ে যতটা চর্চা বা প্রশংসা হয়েছিল, ততখানি ট্রোলিংও হয়েছিল। তাঁর মেকআপহীন ছবি নিয়ে তৈরি হয়েছিল অজস্র মিম। হেটার কিংবা মিমার্স প্রিয়াকে নিয়ে নানা ধরণের মিম নাকি আজও বানাত, যার কারণে সোশ্যাল মিডিয়াকে বিদায় জানালেন প্রিয়া। তবে আদৌ এটাই সঠিক কারণে কিনা তা এখনও জানা যায়নি।

আরও পড়ুনঃসাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

আরও পড়ুনঃকী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

আরও পড়ুনঃশরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা