করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গ ভয়াবহ আকার নিলেও কোভিড বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে শেষকৃত্যে শতাধিক মানুষ জড়ো হয়েছিলেন। রবিরাবর উত্তর প্রদেশের বদায়ুর ছবি নেটদুনিয়ায় রীতিমত ভাইরাল হয়ে যায়। মুসলিম ধর্মগুরু আবদুল হামিদ মহম্মদ সাইমুল কোয়ার্ডির শেষকৃত্য সম্পন্ন হয় রবিবার। আর ধর্মগুরুকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতেই জড়ো হয়েছিলেন প্রচুর মানুষ। ধর্মগুরুর শেষকৃত্য অনুষ্ঠান সুপার স্প্রেডারের ভূমিকা নিতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছে স্থানীয় প্রাশাসন।&

কোভিড বিধিভঙ্গ করার অভিযোগে ইতিমধ্যে উত্তর প্রদেশ পুলিশ শতাধিক অজ্ঞাত পরিচয় মানুষের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। এসএসপি সংকল্প শর্মা জানিয়েছেন, ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অন্যান্য ধারাতেও মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি বলেছেন ধর্মগুরুর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে কয়েক হাজার মানুষ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকা থেকে বদায়ুঁতে চলে এসেছিল। কোভিড সুরক্ষাবিধি না মেনেই একত্রিত হয়েছিল। জড়ো হয়েছিল স্থানীয় মসজিদে। সেই অনুষ্ঠানের ছবি নিমেষে ভাইরাল হয়ে যায় নেটদুনিয়ায়। যে ছবিটে পাওয়া গেছে তাতে দেখা গেছে নিরাপদ শারীরিক দূরত্ববিধি মানা হয়নি। শেষকৃত্যে সামিল হওয়ার অধিকাংশ মানুষই মাস্ক পরেননি। যা নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এই অনুষ্ঠান থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে যাতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

'বিচারবিভাগীয় হস্তক্ষেপ'-এ না কেন্দ্রের, সুপ্রিম কোর্টে করোনা টিকা শুনানি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত স্থগিত...

জনপ্রিয় টেলি অভিনেত্রীর মন্তব্যে সরগরম নেটদুনিয়া, কী এমন বললেন মুনমুন দত্ত ...

'অপারেশন সমুদ্র সেতু ২', কোভিড ত্রাণ নিয়ে কলকাতায় পৌঁছাল যুদ্ধ জাহাজ আইএনএস ঐরাবত

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে উত্তর প্রদেশ সরকার একগুচ্ছ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। শেষকৃত্যের অনুষ্ঠানে মাত্র ২০ জন সামিল হতে পারে বলেও বলা হয়েছে। মাস্ক না পরার জন্য এক হাজার ছেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা ধার্য করা হতে পারে বলেও বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।  বদায়ুঁর পুলিশসুপার জানিয়েছেন মহামারি আইনের আওতায় শেষকৃত্যে সামিল হওয়ার ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।