বিশ্বকাপের শুরুতে ধোনি কিপিং গ্লাভসে বলিদান চিহ্ন থাকা না থাকা নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল। আইসিসি জানিয়েছিল বিশ্বকাপের মঞ্চকে ব্যবহার করে কোনো ধর্মীয়, বানিজ্যিক বা সামরিক বার্তা দেওয়া যাবে না। অথচ, সেই বিশ্বকাপের একেবারে ফাইনাল ম্যাচে ঐতিহ্যবাহী লর্ডস স্টেডিয়ামে এক নগ্নপ্রায় মহিলা ঢুকে পড়ে পর্ন সাইটের প্রচার করলেন।   

আরও বলুন - ফাইনালে অনন্য রেকর্ড কিউই ক্যাপ্টেনের! পিছনে পড়লেন জয়বর্ধনে

আরও পড়ুন - দুর্দান্ত দলগত পারফরম্যান্স, আড়াইশ'র নিচেই কিউইদের বেঁধে ফেললেন আর্চাররা

আরও পড়ুন - সবুজ উইকেটে টসে জিতল কিউইরা! দাদার পরামর্শ মেনে কি ঠিক করলেন কেইন

নিউজিল্যান্ডের ইনিংস চলাকালীন এই ঘটনা ঘটে। সেই সময়ে কেইন উইলিয়ামসনের উইকেট হারিয়ে বেশ বিপাকে নিউজিল্যান্ড। প্রায় ৯০ বল ধরে কোনো বাউন্ডারি আসছে না। ঝিমিয়ে পড়া গ্যালারিতে ওই মহিলা সাময়িক উত্তেজনা ছড়ালেন। খুবই স্বল্পবাসে তিনি মাঠে ঢোকার চেষ্টা করেন। মাঠের সীমানাতেই অবশ্য নরাপত্তা কর্মীরা তাঁকে আটকান। তাঁর পরণের কালো পোশাকেরউপর লেখা ছিল 'ভিটালি আনসেন্সর্ড'।

পরে জানা যায় তিনি জনপ্রিয় ইউটিউবার ভিটালি জগরোভেতস্কি-এর মা এলেনা। 'ভিটালিজিডিটিভি' নামে ওই ইউটিউবার একটি উইটিউব চ্যানেল চালান। ঘটনার পরই ভিটালি তাঁর লর্ডসের মাঠে তাঁর মায়ের ওই কাণ্ড ঘটানোর একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, 'আমার মা পাগল'। জানা গিয়েছে, এর আগে 'ভিটালি আনসেন্সর্ড' ওয়েবসাইটটির প্রচারের জন্য ভিটালির বান্ধবী চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালেও নগ্নপ্রায় অবস্থায় মাঠে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন।