দেশ জুড়ে নিজের মারণ থাবা ক্রমশ বিস্তার করছে করোনা ভাইরাস। মারণ ভাইরাসের আগ্রাসী থাবায় ইতিমধ্যেই দেশে আক্রান্তের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। মৃতের  সংখ্যা পৌছেছে ২০তে।  পরিস্থিতি মোকাবিলায় সংক্রমণ ছড়ানো রুখতে দেশ জুড়ে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। খোলা হয়েছে ত্রাণ তহবিলও। স্বাস্থ্য পরিষেবার ক্ষেত্রেও নেওয়া হয়েছে একাধিক প০ক্ষেপ। কেন্দ্রীয় সরকারের পাশাপাশি যথাসাধ্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে রাজ্যসরকারগুলিও। কেন্দ্রীয় সরকারের গঠিত তহবিলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ও সংগঠন। এবার করোনা যুদ্ধে কেন্দ্রীয় সরকারের পাশে দাঁড়াল ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড।

আরও পড়ুনঃকরোনা যুদ্ধে ৫২ লক্ষ টাকা অনুদান করলেন সুরেশ রায়না

আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় এক লক্ষ টাকা দান করলেন ক্রিকেটার রিচা ঘোষ

শনিবার বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট ও সচিব জয় শাহ জানানা, দেশের এই বিপদের সময় কেন্দ্রীয় সরকারের পাশে থাকবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর নাগরিক সহায়তা ও ত্রান তহবিলে ৫১ কোটি টাকা অনুদানের ঘোষণা করেছে বিসিসিআই। কোভিড ১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বিসিসিআই যথাসাধ্য কেন্দ্রীয় সরকারকে সাহায্য করবে বলে জানান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বিসিসিআই সভাপতি ও সচিব আরও জানিয়েছেন প্রতিটি রাজ্যের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলোচনার পরই এই সিদ্ধান্তে পৌছেছ ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। প্রয়োজনে রাজ্যের বোর্ডের তরফ থেকেও সাহায্য করা হবে করোনা ভাইরাসের সঙ্গ মোকাবিলায়। অই মুহূর্তে দেশবাসীর স্বাস্থ্য দিকটিই সবার আগে বলেও জানানো হয়েছে বিসিসিআইয়ের তরফে।

 

 

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নিজে স্বয়ং ৫০ লক্ষ টাকা অনুদান করেছেন করোনা মোকাবিলায়। এছাড়াও একাধিক পদক্ষেপ নিয়ছেন বাংলার মহারাজ। সৌরভ ছাড়াও সচিনম তেন্ডুলকরও দিয়েছেন ৫০ লক্ষ টাকা। সুরেশ রায়না দিয়েছেন ৫২ লক্ষ টাকা। এছাড়াও শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, ইরফান ও ইউসুফ পাঠানরাও তাদের সাধ্য মত সাহায্য করেছেন। মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে এক হয়ে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন সকলেই।

আরও পড়ুনঃ‘উই নট গিভিং আপ’- গানের মাধ্যমে বিশ্ববাসীকে লড়াইয়ের অনুপ্রেরণা দিলেন ডি জে ব্রাভো