বোর্ড সভাপতি পদে বসার পর দেশের মাঠে প্রথম পিঙ্ক বল টেস্ট আয়োজন করে প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। মহারাজের দেওয়া এই উপহারকে স্বাদরে গ্রহণ করেছে ভারতীয় ক্রিকেট। সভাপতি পদে থাকলে সৌরভ ভারতীয় ক্রিকেট এমন আরও অনেক চমক আনতে পারেন। এমনটাই আশা করছে দেশের ক্রিকেট মহল। তাই সবাই চাইছেন নয় মাস নয়, সৌরভ অন্তন তিন বছর বোর্ড সভাপতির পদে থাকুন। কিন্তু সেক্ষেত্রে বাধা লোধা কমিশনের সুপারিশের প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ। লোধা কমিশনের প্রস্তাব অনুযায়ী কুলিং অফে যেতে হবে মহারাজকে। কিন্তু এই নিয়মে বদল আনতে মরিয়া বিসিসিআই। সোমবার বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভার বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। 

আরও পড়ুন - বদল করা হোক জাতীয় দল নির্বাচক কমিটি, সৌরভের কাছে আর্জি হরভজনের

সোমবারই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল জানিয়েছেন, লোধা কমিশনের সুপারিশ অনুয়ায়ী বোর্ডের যে সংবিধান তৈরি হয়েছে তাতে কিছু বদল আনতে চাইছেন তারা। ‘কুলিং অফ’ নিয়মেই সেই বদল চাইছেন বোর্ড কর্তারা। একজন পদাধাকারীর বয়েস ৭০ পেরিয়ে গেলে তিনি আরপ বোর্ডে বা রাজ্য ক্রিকেট সংস্থার পদে থাকতে পারেবন না। এইব নিয়মে কোনও বদল চাইছে না বিসিসিআই। তবে বোর্ড সভাপতি ও সচিবে যেন একবারে ছয় বছর কাজ করতে পারেন এবং কোষাধ্যক্ষ ও অন্য পদে থাকা ব্যক্তিরা যাতে টানা ৯ বছর কাজ করতে পারেন এমন বিধান চাইছে বিসিসিআই। 

আরও পড়ুন - টিকিট কেটেও দেখা হল না খেলা, টাকা ফেরত দিচ্ছে সিএবি

তবে সংবিধান সংশোধন করটা কি এতটাই সহজ হবে। অরুণ ধুমাল জানিয়েছেন, যা হবে সবাইট সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মত। বোর্ডের এজিএমে প্রস্তাব পাসা করিয়ে সেই প্রস্তাব তারা জমা দেবেন সুপ্রিম কোর্টের কাছে। তারপর দেশের সর্বোচ্চ আদালাত তার রায়ে জানাবে বার্ষিক সাধারণ সভায় যে প্রস্তাব পাস হয়েছে তাতে আদালতের সায় আছে কি না। সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করার সময় কার্যক্ষেত্রে কী কী সমস্যা হচ্ছে সেটাও তুলে ধরা হবে। এবং সেটার প্রেক্ষিতেই আবেদন করা হবে সংবিধান সংশোধনের। 

আরও পড়ুন - কোন পথে হবে টেস্ট ক্রিকেটের উন্নতি, পরামর্শ দিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট